২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

বিহার থেকে কলকাতায় পাচারের ছক, প্রায় সাড়ে সাতশো টিয়াপাখি-সহ ধৃত বর্ধমানের ২ যুবক

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: September 30, 2020 3:49 pm|    Updated: September 30, 2020 4:43 pm

An Images

সৌরভ মাজি, বর্ধমান: সকলের চোখ ফাঁকি দিয়ে প্রচুর পরিমাণ টিয়া বিহার থেক বর্ধমান পর্যন্ত নিয়ে গিয়েছিল পাচারকারীরা। কিন্তু শেষরক্ষা হল না। গলসিতে (Galsi) বনদপ্তরের নজরে পড়ে গেল ২ পাচারকারী। তাদের কাছ থেক প্রায়ে সাড়ে সাতশো টিয়াপাখি ও ৩৫ টি পাহাড়ি ময়না উদ্ধার করেছে বনদপ্তর।

bird-3

জানা গিয়েছে, বিহার থেকে কলকাতায় পাচারের উদ্দেশ্যে পাখি আনার ছক কষেছিল বর্ধমানের আলুডাঙার বাসিন্দা ২ যুবক। সেই মতো বিহারের পাচারকারীদের সঙ্গে যোগাযোগ করে তারা। পরিকল্পনা অনুযায়ী বিহারের পাচারকারীরা পাখি নিয়ে বাসে করে এসে পৌঁছয় গলসিতে। সেখানে আলুডাঙার বাসিন্দা মেহেরাম মহম্মদ ও শেখ সাবিরের হাতে পাখি দিয়ে দেয় তাঁরা। ওই যুবকেরা পাখিগুলি পিকআপ ভ্যানে তোলের সময় বনদপ্তরের আধিকারিকরা হাতেনাতে ধরে ফেলে তাঁদের। তখনই গ্রেপ্তার করা হয় মেহেরাম মহম্মদ ও শেখ সাবিরকে। জানা গিয়েছে, পাখিগুলি উদ্ধার করে আপাতত বর্ধমানের এক অভয়ারণ্য রাখা হয়েছে।

bird-2

[আরও পড়ুন: এবার অ্যাপেই মিলবে সাইকেল, করোনা কালে ছোঁয়াচ এড়াতে নয়া পরিষেবা শুরু নিউটাউনে]

এবিষয়ে বর্ধমানের বিভাগীয় বনাধিকারিক দেবাশিস শর্মা জানান,”মূলত কলকাতায় পাচারের উদ্দেশ্যেই এই টিয়াপাখিগুলি আনা হয়েছিল বলে অনুমান। পাখিগুলিকে আপাতত অভয়ারণ্যে রাখা হয়েছে।” জানা গিয়েছে, ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে এই চক্রে জড়িত বাকিদের হদিশ পাওয়ার চেষ্টা কছে পুলিশ। কতদিন ধরে ধৃতরা এই চক্রে জড়িত তা-ও জানার চেষ্টা করছে পুলিশ।

ছবি: মুকুলেসুর রহমান

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement