BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২০ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

এবার অ্যাপেই মিলবে সাইকেল, করোনা কালে ছোঁয়াচ এড়াতে নয়া পরিষেবা শুরু নিউটাউনে

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: September 30, 2020 9:16 am|    Updated: September 30, 2020 9:16 am

An Images

কলহার মুখোপাধ্যায়, বিধাননগর: নিউটাউনে সূচনা হয়ে গেল অ্যাপ নির্ভর সাইকেল পরিষেবার। আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেন পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম (Firhad Hakim)। কয়েকমাস ধরেই দূষণ নিয়ন্ত্রণে এবং করোনা কালে পারস্পরিক ছোঁয়াচ এড়াতে এই দ্বিচক্র যান চলাচলে জোর দিয়েছিল নিউটাউন।

করোনা আবহে বিশ্বজুড়েই সাইকেলে যাতায়াতে জোর দিচ্ছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। সাধারণ মানুষও ছোঁয়াচ এড়াতে সাইকেলে চেপে অফিস যাচ্ছেন অনেকটা পথ পেরিয়ে। সেই প্রেক্ষিতে অ্যাপ নির্ভর সাইকেল তাৎপর্যপূর্ণ। সেই কারণে নিউটাউনে এই অ্যাপ সাইকেল চালু করার সিদ্ধান্ত। এ প্রসঙ্গে পুরমন্ত্রী জানিয়েছেন, “করোনা সংক্রমণ থেকে বাঁচতে অনেকেই সাইকেল ব্যবহারে আগ্রহী। তাছাড়া, এতে নিউটাউনের দূষণ যেমন নিয়ন্ত্রণে থাকবে, তেমনই শহরের অভ্যন্তরীণ যাতায়াত ব্যবস্থাও উন্নত হবে। সে কারণেই অ্যাপ সাইকেল চালু হল।” এনকেডিএ জানিয়েছে, প্রথমধাপে নিউটাউন জুড়ে ৫০০টি সাইকেল নামানো হয়েছে। এর মধ্যে ১০০টি প্যাডেল চালিত। বাকি ৪০০টি সাইকেল চলবে ব্যাটারিতে।

[আরও পড়ুন: রাম মন্দির নিয়ে পোস্ট করায় খুনের হুমকি হাসিনকে, পুলিশের কাছে রিপোর্ট চাইল হাই কোর্ট]

কিন্তু কীভাবে মিলবে এই সাইকেল? জানা গিয়েছে, সাইকেল পেতে গেলে প্লে স্টোর থেকে ‘চার্টার্ড বাইক’ নামে একটি অ্যাপ ডাউনলোড করতে হবে। ওই অ্যাপের মাধ্যমে সাইকেল বুক করলেই কিউ আর কোডের লিংক এবং সাইকেলের নম্বর মোবাইলে এসএমএস করে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। ওই কিউ আর কোড সাইকেলের সামনে থাকা কিউ আর কোডের সঙ্গে স্ক্যান করালেই খুলে যাবে তালা। নিউটাউনের নারকেলবাগান মোড়, ইকো পার্কের ৪টি গেট, রবীন্দ্র তীর্থ, বলাকা আবাসন মোড়-সহ গুরুত্বপূর্ণ ২০টি মোড়ে সাইকেলগুলি রাখার জন্য স্ট্যান্ড তৈরি করা হয়েছে। সাইকেলের জন্য তৈরি আলাদা পৃথক লেন তো বটেই, এছাড়া যে কোনও রাস্তার একপাশ দিয়ে সাইকেল চালানো যাবে নয়া উপনগরীতে। সাইকেল চালানোর জন্য নাগরিকদের উৎসাহিত করতে প্রথম এক মাস ফ্রি রাইড উপভোগের সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। এরপর থেকে প্রতি আধ ঘণ্টার জন্য ৫ টাকা করে ভাড়া গুনতে হবে আরোহীদের।

[আরও পড়ুন: ‘গুলি খাব তবু বিক্ষুব্ধ জনতাকে কোর্টের মর্যাদা ক্ষুন্ন করতে দেব না’, মন্তব্য প্রধান বিচারপতির]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement