BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

রেশন কার্ডের সমস্যায় লকডাউনেও শূন্য ভাঁড়ার, সাহায্যের হাত বাড়ালেন বিজেপি নেতা

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: April 29, 2020 7:43 pm|    Updated: April 29, 2020 7:44 pm

An Images

জোতি চক্রবর্তী, বনগাঁ: রেশন কার্ডের সমস্যা দীর্ঘদিনের। এতদিন তাতে খুব একটা অসুবিধে না হলেও, এই লকডাউনে রেশন কার্ডের কারণেই শূন্য ভাঁড়ার। দু’বেলার অন্ন জোগাড় করা রীতিমতো কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে বনগাঁ রেলবস্তির কার্তিক দাসের কাছে। এ খবর পেয়েই সহযোগিতার হাত বাড়ালেন বিজেপি নেতা। হাতে তুলে দিলেন পর্যাপ্ত খাদ্যসামগ্রী।

জানা গিয়েছে, বনগাঁর পেট্রাপোল থানার কালিয়ানি গ্রামের বাসিন্দা কার্তিক দাস। রাজমিস্ত্রির জোগাড়ের কাজ করেন তিনি। বছর দেড়েক আগে পরিবারের চার সদস্যের রেশন কার্ডের ঠিকানা বদলের জন্য আবেদন করেছিলেন কার্তিক। দু’জনের কার্ড এলেও বাকিদেরটা এখনও মেলেনি। যার জেরে দু’জনের রেশন তুলতে পারছেন না তিনি। লকডাউনে বন্ধ কাজও। ফুরিয়েছে দু’টি কার্ড বাবদ প্রাপ্ত সামগ্রী। এই পরিস্থিতিতে কী করবেন বুঝে উঠতে পারছিলেন না তিনি। শেষে হাজির হন বিজেপি নেতা দেবদাস মণ্ডলের বাড়ির সামনে। যুবককে দেখে দেবদাসবাবু ঘর থেকে বেরতেই কেঁদে ফেলেন কার্তিক। এরপরই তাঁর কাছে সবটা শোনেন। সঙ্গে সঙ্গে কার্তিকের হাতে চাল, ডাল, আলু, সোয়াবিন তুলে দেন বিজেপি নেতা। আশ্বাস দেন ভবিষ্যতেও পাশে থাকার।

[আরও পড়ুন: লকডাউনে বন্ধ রোজগার, ১৩ দিন সাইকেল চালিয়ে তামিলনাড়ু থেকে ফিরলেন বাংলার শ্রমিক]

দেবদাসবাবু বলেন, “সরকার প্রতিশ্রুতি মতো প্রত্যেককে মাথা পিছু ৫ কেজি করে চাল দিচ্ছে না বলেই মানুষ অনাহারে থাকছেন। কার্তিক দাসের কথায়, “রেশন কার্ডের জন্য বিডিও অফিস, পঞ্চায়েত সদস্য থেকে ফুড সাপ্লাই অফিস সব জায়গায় গিয়েছি। কিন্তু কোনও লাভ হয়নি। বর্তমানে ঘরে কোনও খাবার নেই। কীভাবে পরিবারের লোকের মুখে অন্ন তুলে দেব ভেবে পাচ্ছিলাম না৷ বাবার বন্ধু বিজেপি নেতা দেবদাস মণ্ডল। তাঁর দল করি না, কিন্তু এদিন তাঁর বাড়ির সামনে এসে দাঁড়িয়ে ছিলাম। সাহায্য চাইতে ইতস্তত বোধ করছিলাম। উনি নিজেই আমাকে ডেকে নিয়ে খাবার দিলেন। আমি কৃতজ্ঞ।”

[আরও পড়ুন: উপার্জনের আশায় জঙ্গলে মাছ ধরতে যাওয়াই কাল, বাঘের আক্রমণে মৃত্যু মৎস্যজীবীর]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement