BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

উপার্জনের আশায় জঙ্গলে মাছ ধরতে যাওয়াই কাল, বাঘের আক্রমণে মৃত্যু মৎস্যজীবীর

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: April 29, 2020 4:40 pm|    Updated: April 29, 2020 5:37 pm

An Images

দেবব্রত মণ্ডল, বারুইপুর: লকডাউনের একমাস পেরিয়েছে। আর যতদিন এগোচ্ছে ততই বাড়ছে খাদ্য সংকট। এই পরিস্থিতিতে সংসারের অভাব ঘোঁচাতে জঙ্গলে মাছ ধরতে যাওয়াই কাল হল সুন্দরবনের এক মৎস্যজীবীর। বাঘের আক্রমনে মৃত্যু হয়েছে তাঁর। পরিবারের উপার্জনকারী সদস্যের মৃত্যুতে কান্নায় ভেঙে পড়েছে পরিবার।

দক্ষিণ ২৪ পরগনার গোসাবা থানার লাহিড়ীপুর এলাকার বাসিন্দা সুজিত মণ্ডল নামে ওই মৎস্যজীবী। মূলত সুন্দরবনের জঙ্গলে মাছ-কাঁকড়া ধরে এবং এলাকায় দিনমজুরের কাজ করে সংসার নির্বাহ করতেন তিনি। তাঁর একমাত্র ছেলে কেরলে কর্মরত। কিন্তু বর্তমানে লকডাউনের কারণে সেখানেই আটকে পড়েছেন তিনি। এদিকে উপার্জন বন্ধ সুজিতববাবুরও। ফলে সংসার চালানো কার্যত দায় হয়ে উঠেছিল। সেই কারণেই বুধবার সকালে দুই সঙ্গীর সঙ্গে সুন্দরবনের জঙ্গলে মাছ ধরতে যান সুজিত মণ্ডল। তিনি ভাবতেও পারেননি যে, সেখানে যাওয়াই তাঁর জন্য কাল হবে। জানা গিয়েছে, জঙ্গলে ঢুকতেই তাঁকে টেনে নিয়ে যায় বাঘ। দক্ষিণরায়ের হানায় সেখানেই মৃত্যু হয় তাঁর। তবে বনদপ্তর এখনও দেহটি উদ্ধার করতে পারেনি। সূত্রের খবর, যেহেতু ওই ব্যক্তির ছেলে বর্তমানে উপস্থিত নেই, তাই তাঁর সৎকার করবে নাবালিকা মেয়ে। আচমকা মৎস্যজীবীর মৃত্যুতে শোকেরছায়া এলাকায়। ওই ব্যক্তির পরিবার আদৌ সরকারি সহযোগিতা পাবেন কিনা ত নিয়েও সন্ধিহান পরিবার।

[আরও পড়ুন: Covid-19 পরীক্ষা বাড়ানোর ভাবনা, এবার বিশ্ববিদ‌্যালয়ের পিসিআরে হবে করোনা নির্ণয়]

প্রসঙ্গত, করোনা আতঙ্কে আগেই সুন্দরবনের জঙ্গলে মাছ কাঁকড়া ও মধু সংগ্রহের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে বনদপ্তর। নিষেধাজ্ঞা না মেনেই তাও অনেকেই লুকিয়ে-চুরিয়ে মাছ, কাঁকড়া ধরছেন। আর সেখানেই একের পর এক ঘটছে অঘটন।

[আরও পড়ুন: জোড়া ঘূর্ণাবর্তের জের, বৃহস্পতিবার থেকে দক্ষিণবঙ্গে বাড়বে বৃষ্টির পরিমাণ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement