BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

হাসপাতালে যাওয়ার পথে অ্যাম্বুল্যান্স থেকে উধাও যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রাপ্ত করোনা রোগী

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: August 3, 2020 2:43 pm|    Updated: August 3, 2020 2:46 pm

An Images

ছবি: প্রতীকী

শুভদীপ রায়নন্দী, শিলিগুড়ি: হাসপাতালে যাওয়ার পথে দার্জিলিং থেকে উধাও করোনা আক্রান্ত যাবজ্জীবন সাজা প্রাপ্ত এক আসামী। রবিবার সন্ধেবেলা চম্পট দেয় ওই ব্যক্তি। খবর ছড়িয়ে পড়তেই তার খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ।

জানা গিয়েছে, যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত ভীম রাই নামে ওই বন্দি কয়েকদিন আগেই প্যারোলে মুক্তি পেয়েছিল। দার্জিলিংয়ের লোধেমা গ্রামে নিজের বাড়িতেই ছিল সে। সেই সময়ই তাঁর শরীরে করোনার (Corona Virus) একাধিক উপসর্গ দেখা দেয়। পরীক্ষা করা হলে জানা যায়, সে আক্রান্ত। এরপরই রবিবার সন্ধেয় কালিম্পংয়ের ত্রিবেণী কোভিড (COVID) হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল ভীমকে। মাঝপথে জঙ্গলের মাঝে শৌচকর্মের নাম করে অ্যাম্বুল্যান্স থেকে নামে সে। অ্যাম্বুল্যান্সে কোনও রক্ষী না থাকায়, একাই জঙ্গলের ভিতর ঢুকেছিল ভীম। এরপর আর হদিশ মেলেনি ওই আসামীর। বিষয়টি জানাজানি হতেই অভিযুক্তের খোঁজে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: ইদ উপলক্ষে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের বিবাদ, দর্শক ভরা মাঠেই চলল গুলি]

কিন্তু এহেন দাগী আসামীকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে কেনও আরও সতর্কতা অবলম্বন করা হল না, সেই প্রশ্ন তুলছেন অনেকেই। প্রসঙ্গত, স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে ২০১১ সালে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড পায় ভীম। দার্জিলিংয়ের জেলাশাসক এস পুনাম্বলম জানান, “অপরাধীর খোঁজে তদন্ত শুরু হয়েছে। শীঘ্রই হদিশ মিলবে তার।” কিন্তু এই ঘটনায় মাথা চাড়া দিয়েছে সংক্রমণ বৃদ্ধির আশঙ্কা। কারণ, আক্রান্ত অবস্থায় বিভিন্ন জায়গায় ঘোরায় ওই আসামী সংক্রমণ ছড়াতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে। উল্লেখ্য, বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ওই ব্যক্তির পরিবারের সদস্য ও বেশ কিছু গ্রামবাসী।

[আরও পড়ুন: করোনা পরিস্থিতি পরিশ্রম দ্বিগুণ, বেতন তলানিতে, রাজ্যপালের দ্বারস্থ আয়ুশ চিকিৎসকরা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement