BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মন্দিরে বিয়ে সেরে স্কুটিতে শ্বশুরবাড়ি গেলেন বধূ, অনুষ্ঠানের টাকা দিলেন ত্রাণ তহবিলে

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: April 16, 2020 7:53 pm|    Updated: April 16, 2020 7:53 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পরিকল্পনা ছিল সকলের মতো জাঁকিয়ে বিয়ের আসনে বসার। কিন্তু করোনা আবহে তা অসম্ভব। তাই মন্দিরে বিয়ে সেরে সেই খাতে বরাদ্দ অর্থ মু্খ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে তুলে দিলেন হাওড়ার উলুবেড়িয়ার উদয়নারায়ণপুরের দীপায়ন ও তাঁর স্ত্রী পিয়ালী।

জানা গিয়েছে, উদয়নারায়ণপুরের প্রতাপচকের বাসিন্দা দীপায়ন সামন্ত বেসরকারি সংস্থায় কর্মরত। পিয়ালি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা। চলতি বছরের জানুয়ারিতেই রেজিস্ট্রি বিয়ে হয়েছে তাঁদের। ঠিক হয়েছিল ৩ রা মে সামাজিকভাবে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হবেন দীপায়ন ও পিয়ালী। কিন্তু দ্বিতীয় দফার লকডাউনই শেষ হওয়ার কথা মে মাসের ৩ তারিখ। তাই স্বাভাবিকভাবেই বিয়ের অনুষ্ঠান করা সম্ভব নয়। এরপর পাত্র ও কনেপক্ষের তরফে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যে, মন্দিরেই সারা হবে ওই যুগলের বিয়ে। তখনই তাঁরা ঠিক করেন যে, বিয়েতে যা খরচ হত সেই টাকা তুলে দেওয়া হবে মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে।

[আরও পড়ুন:  করোনা সচেতনতায় হাতিয়ার লোকনৃত্য, নতুন পালায় সতর্কবার্তা দিচ্ছেন ছৌ শিল্পীরা]

সেই মতো কার্যত লোকচক্ষুর আড়ালে পয়লা বৈশাখের রাতে বধূবেশে এলাকার একটি মন্দিরে যান পিয়ালী। হাতে গোনা দু-একজনকে সঙ্গে নিয়ে হাজির হন পাত্রও। সেখানেই সম্পন্ন হয় বিয়ে। এরপর বরকে স্কুটিতে নিয়ে শ্বশুরবাড়ি হাজির হন পিয়ালী। আর তাঁদের বিয়ের অনুষ্ঠান বাবদ যা জমানো ছিল তা তুলে দেওয়া হবে মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে। প্রসঙ্গত,  করোনা মোকাবিলায় কোমর বেঁধে নেমেছে রাজ্য। বহু সহৃদয় মানুষও নিজেদের সামর্থ্য অনুযায়ী মানুষের সাহায্যে এগিয়ে এসেছেন। এমনকী খুদেরাও তাঁদের সঞ্চয় তুলে দিয়েছে তহবিলে, এই পরিস্থিতিে এই নবদম্পতির উদ্যোগ সত্যিই প্রশংসনীয়। 

[আরও পড়ুন:  স্বামীর পর শাশুড়ি, সংক্রমণ ছড়াচ্ছে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যালের করোনা আক্রান্ত নার্সের পরিবারে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement