৩০ শ্রাবণ  ১৪২৭  শনিবার ১৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

ফের চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ, কাকদ্বীপে ডাক্তারের উপর চড়াও রোগীর আত্মীয়রা

Published by: Bishakha Pal |    Posted: June 13, 2019 5:29 pm|    Updated: June 13, 2019 5:29 pm

An Images

সুরজিৎ দেব, ডায়মন্ড হারবার: এনআরএসের জুনিয়র ডাক্তারের উপর হামলার পর কর্মবিরতি শুরু হয়েছে। রাজ্যের একাধিক হাসপাতালে বন্ধ রয়েছে বহির্বিভাগ। এমন পরিস্থিতিতেও কিন্তু রোগীর আত্মীয়দের হতে প্রহৃত হলেন এক চিকিৎসক। এবার উঠল চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ।

ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার কাকদ্বীপে। পুলিশ সূত্রে খবর, ওই চিকিৎসকের নাম আশিস মণ্ডল। কাকদ্বীপ হাসপাতালের ডাক্তার তিনি। কিন্তু ঘটনাটি ঘটে তাঁর নিজস্ব চেম্বারে। দিন তিনেক আগে এক অসুস্থ শিশুকে চিকিৎসার জন্য তাঁর কাছে নিয়ে আসেন ওই শিশুর আত্মীয়রা। শিশুটির শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল বলে খবর। আশিসবাবু শিশুটিকে একটি ইনজেকশন দেন। অভিযোগ, এরপরই শিশুটির অবস্থার অবনতি হতে থাকে। তার হাত ফুলে যায়। সঙ্গে সঙ্গেই তিনি কলকাতার শিশুমঙ্গলে ট্রান্সফার করে দেন শিশুটিকে। এখন ওখানেই তার চিকিৎসা চলছে। তবে শিশুর পরিস্থিতি নাকি সংকটজনক বলে শোনা যাচ্ছে।

[ আরও পড়ুন: অস্ত্র হাতে রাস্তায় ঘুরছে ‘অশরীরী’ ছেলেধরা! আতঙ্ক আলিপুরদুয়ারে ]

ইস্যুটি এখানেই থেমে যেতে পারত। কিন্তু তা হল না। বুধবার রাতে রোগীর আত্মীয়রা আচমকাই তাঁর চেম্বারে এসে হামলা চালান বলে অভিযোগ। ডাক্তার আশিস মণ্ডলকে তাঁরা হেনস্তা করেন বলেও অভিযোগ। তাঁর জামার কলার ধরে টানা হয় বলেও অভিযোগ। তাঁদের বক্তব্য, কলকাতায় শিশুটিকে নিয়ে যাওয়ার ফলে খরচ হচ্ছে বেশি। এছাড়া ইনজেকশন দেওয়ার পর শিশুর হাত কেন ফুলে গেল, তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তাঁরা। ঘটনার কথা ছড়িয়ে পড়তেই স্থানীয়রা এসে চিকিৎসককে উদ্ধার করেন। খবর দেওয়া হয় পুলিশে। তবে পুলিশ জানিয়েছে, আশিস মণ্ডলের তরফে কোনও লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়নি।

[ আরও পড়ুন: ডাক্তারদের কর্মবিরতিতে মৃত্যুমিছিল রোগীদের, চাঞ্চল্য উত্তরবঙ্গ মেডিক্যালে ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement