BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ডাইনি সন্দেহে প্রবীণকে পিটিয়ে মারল গ্রামবাসীরা, জখম হয়ে হাসপাতালে দুই মহিলা

Published by: Paramita Paul |    Posted: December 10, 2020 5:21 pm|    Updated: December 10, 2020 5:34 pm

Bengali news: A man killed in Malbazar by lynching in doubt of witch | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী

অরূপ বসাক, মালবাজার: মালবাজারে কুসংস্কারের বলি এক প্রবীণ। গুজবের জেরে গণপিটুনিতে (Lynching) জখম আরও দুই মহিলা। অভিযোগ, ওই তিনজন তন্ত্রসাধনা করে গ্রামবাসীদের খুন করছিল। এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই বুধবার রাতে তাদের উপর চড়াও হয় বাসিন্দারা।

ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। কয়েকজন অভিযুক্তকে ইতিমধ্যে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলেও খবর। মালবাজারের এসডিপিও রবিন থাপা জানিয়েছেন, “ঘটনার তদন্ত চলছে। এ বিষয়ে যা বলার পুলিশ সুপার বলবেন।”

[আরও পড়ুন : ডায়মন্ড হারবার যাওয়ার পথে শিরাকোলে নাড্ডার কনভয়ে হামলা, গাড়ি ভাঙচুর]

মালবাজার মহকুমার নাগরাকাটার ময়নাখোলাতে ডাইনি সন্দেহে ঘুমন্ত অবস্থায় এক ৬০ বছরের ব্যক্তিকে তুলে নিয়ে গিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে গ্রামবাসীরা । জখম হয়েছে আরও দুই মহিলা। আহতদের চিকিৎসা চলছে মালবাজার সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে।

পুলিশ সূত্রে খবর, মৃতের নাম মোঙ্গরা উরাও (৬০)। বাড়ি ভগৎপুর চা বাগানের ময়নাখোলাতে। মৃতের আত্মীয় আমির মিঞ্জের অভিযোগ, বিভিন্ন রোগে গ্রামে বেশ কয়েকজনের মৃত্যু হয়। রটে যায়, ওই দুই মহিলা নাকি তন্ত্রসাধনার মাধ্যমে তাদের মেরে ফেলেছে। এরপরই গ্রামের লোকজন ওই দুই মহিলাকে মারধর শুরু করে। তারা আবার মৃত মোঙ্গরার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন। 

ওই মহিলারা মোঙ্গরাবাবুর নাম বলে দেয় বলে অভিযোগ। বলেন, মোঙ্গরা নাকি তাদের বড় ডাইনি। এরপরই গ্রামের বেশ কয়েকজন যুবক মোঙ্গরা-সহ তিনজনকে ময়নাখোলাতে তুলে নিয়ে যায়। এরপর তিনজনকেই লাঠি এবং রড দিয়ে মারধর করা হয়।

খবর পেয়ে পুলিশ এসে জখম ব্যক্তিদের উদ্ধার করে। মোঙ্গরা ঘটনাস্থলেই মারা যায়। রাতেই পুলিশ এই ঘটনায় যুক্ত সাতজনকে গ্রেপ্তার করে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। এ দিন মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য জলপাইগুড়ি পাঠায় নাগরাকাটা থানার পুলিশ।

[আরো পড়ুন : জেপি নাড্ডার সভার আগেই আক্রান্ত ডায়মন্ড হারবারের বিজেপি সভাপতি, অভিযুক্ত তৃণমূল]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে