২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৯ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, দুর্গাপুর: নাবালককে খুনের অভিযোগে বাবাকে গ্রেপ্তার করল পুলিশ। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে দুর্গাপুরের পাণ্ডবেশ্বরে। জানা গিয়েছে, মৃতের মামার বাড়ির অভিযোগের ভিত্তিতেই শ্মশান থেকে নাবালকের দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ।

জানা গিয়েছে, প্রায় বারো বছর আগে আসানসোলের দোমানির বাসিন্দা পূর্ণিমা দাসের সঙ্গে বিয়ে হয় পাণ্ডবেশ্বরের বাসিন্দা প্রকাশ পালের। ওই দম্পতির সন্তান বছর দশেকের সূর্য পাল। ছোট থেকেই অসুস্থ ছিল সূর্য। কিন্তু প্রথম থেকে পূর্ণিমার সঙ্গে প্রকাশ সম্পর্ক স্বাভাবিক ছিল না।অভিযোগ, বরাবর প্রকাশ বরাবরই অত্যাচার করত পূর্ণিমার উপর।

[আরও পড়ুন:বান্ধবীর প্রাক্তন প্রেমিকের হাতেই খুন যুবক? নিমতা হত্যাকাণ্ডে জোরাল ত্রিকোণ প্রেমের তত্ত্ব]

পুজার সময় বাপের বাড়িতে গিয়ে গোটা বিষয়টি জানায় পূর্ণিমা। এরপর কিছুদিন সেখানেই ছিলেন ওই মহিলা। বুধবার প্রতিবেশী মারফত খবর যায় যে, তাঁর ছেলে সূর্যর মৃত্যু হয়েছে। এরপর পূর্ণিমাদেবীর বাপের বাড়ির সদস্যরা পাণ্ডবেশ্বরে পৌঁছন। সেখানে গিয়ে তাঁরা জানতে পারেন যে, তাঁরা পৌঁছনোর আগেই সূর্যকে দাহ করতে শ্মশানে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

বিষয়টি জানতে পেরেই পূর্ণিমাদেবীর বাবার বাড়ির লোকেরা পাণ্ডবেশ্বর থানায় মৌখিক অভিযোগ জানায়। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই বুধবার শ্মশান থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায় পুলিশ। এরপর বৃহ্স্পতিবার সকালেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে মৃতের বাবা তথা প্রাক্তন তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্য প্রকাশ পালকে। যদিও প্রকাশ পালের দাদা রবিন পালের দাবি, তাঁর ভাইয়ের বিরুদ্ধে মিথ্যে অভিযোগ করা হচ্ছে। তিনি বলেন, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েই মৃত্যু হয়েছে ওই নাবালকের। কিন্তু আদতে কিভাবে মৃত্যু হল ওই কিশোরের ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পরই বিষয়টি স্পষ্ট হবে বলে জানিয়েছেন তদন্তকারীরা।

[আরও পড়ুন: বেআইনি খনিতে ৫ দিন ধরে নিখোঁজ তিন, উদ্ধারে ডাক পড়ছে ‘লাদেন’-এর]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং