৫ ফাল্গুন  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চতুর্থ শ্রেণির দুই পড়ুয়াকে যৌন নিগ্রহের অভিযোগ উঠল এক জওয়ানের বিরুদ্ধে। বিষয়টি প্রকাশ্যে আসতেই অভিযুক্ত জওয়ানকে আটকে বেধড়ক মারধর করে স্থানীয়রা। বৃহস্পতিবার চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে কোচবিহারের মেখলিগঞ্জে।

জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকালে নেতাজির জন্মজয়ন্তী পালনের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে সীমান্তের মেখলিগঞ্জের কলেজ মোড় এলাকায় একটি স্কুলে এসেছিল চতুর্থ শ্রেণির দুই ছাত্রী। অভিযোগ, সেখানে উপস্থিত এক জওয়ান দুই ছাত্রীকে ক্লাসরুমে ঢুকতে বলে। অভিযোগ, ক্লাসরুমের ভিতর ওই জওয়ান দুই পড়ুয়ার শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে। সেই সময় এক ছাত্রী কোনওক্রমে দৌড়ে ক্লাসরুম থেকে বেরিয়ে পাশের বাড়ির এক মহিলাকে বিষয়টি জানায়। এরপরই উত্তেজিত জনতা ওই বিএসএফ জওয়ানকে আটকে ফেলে। স্কুলের ভিতরই বেধড়ক মারধর করা হয় তাকে। খবর পেয়ে অন্যান্য বিএসএফ কর্মীরা ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছোয়। পরিস্থিতি আয়ত্বে আনতে ঘটনাস্থলে যায় বিশাল পুলিশ বাহিনী।

[আরও পড়ুন: নেতাজির জন্মদিনে প্রতিযোগিতার আয়োজন পঞ্চায়েতের, পুরস্কারে দেওয়া হল ‘সবুজ সাথী’র সাইকেল]

ঘটনার জেরে আক্রমণ করা হয় বিএসএফএর অন্য জওয়ানদেরও। স্থানীয়রা জানান, প্রতিবছর নেতাজির জন্মদিনে স্কুলের পড়ুয়াদের চকোলেট এবং কমলালেবু দেওয়া হয়। আর তাই নিতেই ছাত্রীরা এসেছিল। স্কুলে এমন পরিস্থিতি হবে তা কখনওই কেউ ভাবতে পারেননি। এলাকার উত্তেজনা থাকায় বিশাল পুলিশবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। যদিও এবিষয়ে এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া দেননি বিএসএফ কর্তৃপক্ষ।

[আরও পড়ুন: ট্যাঙ্ক ভাঙার ঘটনায় উচ্চপর্যায়ের তদন্ত, ঠিকাদারদের লাইসেন্স বাতিলের হুঁশিয়ারি মন্ত্রীর]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং