৯ ফাল্গুন  ১৪২৬  শনিবার ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, দুর্গাপুর: নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আয়োজিত ম্যারাথন প্রতিযোগিতার প্রথম পুরস্কার সবুজসাথী সাইকেল! এই পুরস্কার কেন্দ্র করেই শুরু হয়েছে প্রবল বিতর্ক। দুর্গাপুর-ফরিদপুর পঞ্চায়েত সমিতির উদ্যোগে বৃহস্পতিবার সকালে ম্যারাথন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানেই বিজয়ীর হাতে তুলে দেওয়া হয় সবুজসাথীর সাইকেল। স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের জন্য আনা সবুজসাথী প্রকল্পের সাইকেল কীভাবে পুরস্কার হিসাবে তুলে দেওয়া হল, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন প্রতিযোগিরাও। বিতর্ক এড়াতে তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন বিডিও।

নেতাজির জন্মদিন উপলক্ষ্যে লাউদোহার সরকপি মোড় থেকে পঞ্চায়েত সমিতির দপ্তর পর্যন্ত ম্যারাথন দৌড়ের আয়োজন করা হয়েছিল। এই ম্যারাথন দৌড়ে মোট ১২৪জন প্রতিযোগি অংশ নেন। প্রতিযোগিতায় প্রথম হন বিদ্যুৎ বাগদী। তাঁর হাতেই পুরস্কার হিসাবে সবুজসাথীর সাইকেল তুলে দেওয়া হয়। একটি সরকারি প্রকল্পের অনুদান কীভাবে অন্য একটি সরকারি অনুষ্ঠানে ব্যবহার করা হল, তা নিয়েই বিতর্ক শুরু হয়ে যায়। বিডিও, পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি ও জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষের উপস্থিতিতেই সবুজসাথীর সাইকেল তুলে দেওয়া হয় বিজয়ীর হাতে। পুরস্কার বিতরণীর শেষে যখন সবুজসাথীর সাইকেল কেন দেওয়া হল, তা নিয়ে প্রশ্ন করতেই হকচকিয়ে যায় আধিকারিকরা।

[আরও পড়ুন: সভার আগেই টিটাগড়ে কানহাইয়ার নামে বিতর্কিত পোস্টার, আটক ৮ বিজেপি কর্মী]

দুর্গাপুর-ফরিদপুর ব্লকের বিডিও মৃণালকান্তি বাগচি বলেন, “বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে। যাদের ভুলে এটা হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থাও নেওয়া হবে।” পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি শ্রীমতি হেমব্রম জানান, “বিষয়টি জানা ছিল না। সবুজসাথীর সাইকেল ছাত্রছাত্রীদের দেওয়া হয়। অন্য কাউকে দেওয়া আইনত দণ্ডনীয়।” এদিকে বিতর্ক ধামাচাপা দিতে তৎপর হয়ে ওঠে ব্লক প্রশাসন। প্রায় ছয় ঘণ্টা পর ফের সেই সাইকেল পরিবর্তন করে বিদ্যুত বাগদীর হাতে তুলে দেওয়া হয় নতুন একটি সাইকেল। জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ সুজিত মুখোপাধ্যায়ই বিজয়ীর হাতে তুলে দিয়েছিলেন সবুজসাথীর সাইকেল। এই বিষয়ে সুজিতবাবু বলেন, “তাড়াহুড়ো করায় এটা ঘটেছিল। সাইকেল পরিবর্তন করা হয়েছে।” 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং