২৯ ভাদ্র  ১৪২৬  সোমবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

দেবব্রত মণ্ডল, বারুইপুর: শারীরিক অসুস্থতা নাকি অত্যাচার? বারুইপুর সংশোধানাগারে বন্দি মৃত্যুর ঘটনায় একাধিক প্রশ্নের ভিড়৷ সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষের দাবি বুধবার সন্ধেয় আচমকা অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি৷ তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে৷ যদিও পরিবারের দাবি অসুস্থতা নয়, অত্যাচারের মৃত্যু হয়েছে বন্দির৷ এই অভিযোগে গড়িয়ায় পথ অবরোধও করেন নিহতের পরিজনেরা৷

[আরও পড়ুন: মাঝ রাস্তায় টোটো থামিয়ে স্কুল ছাত্রীকে কুপ্রস্তাব, গ্রেপ্তার চালক]

বেশ কয়েকদিন ধরেই বারুইপুর সংশোধনাগারে বন্দি কাজল দে৷ বুধবার সন্ধেয় আচমকাই সংশোধনাগারের মধ্যেই গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন সে৷ তাকে উদ্ধার করে বারুইপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যায় জেল কর্তৃপক্ষ। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। তবে কী কারণে ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে সে বিষয়টি এখনও পরিষ্কার নয়। মৃত্যুর কারণ জানতে দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে বারুইপুর থানার পুলিশ।

[আরও পড়ুন: ভিনরাজ্যে বিক্রির ছক দাদু ও মাসির! তেহট্টে কিশোরী অপহরণকাণ্ডে মিলল চাঞ্চল্যকর তথ্য]

আচমকা অসুস্থ হয়ে পড়েছিল কাজল তা মানতে নারাজ বন্দির পরিজনেরা৷ তাঁদের দাবি, সংশোধনাগারে অত্যাচারের জেরেই মারা গিয়েছে কাজল৷ এই অভিযোগে মৃতের পরিবার বৃহস্পতিবার সকালে গড়িয়ায় পথ অবরোধ করে। মৃত কাজলের শিশুকন্যা ও পরিবারের জন্য আর্থিক সাহায্যও দাবি করা হয় অবরোধকারীদের তরফে। ব্যস্ত সময়ে পথ অবরোধের জেরে বেজায় সমস্যায় পড়েন যাতায়াতকারীরা৷ বেশ কিছুক্ষণ পর পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছয়৷ তদন্ত করে বন্দিমৃত্যুর আসল কারণ খতিয়ে দেখা হবে বলেই আশ্বাস দেন পুলিশকর্মীরা৷ আশ্বাস পেয়েই অবরোধ তুলে নেন মৃত বন্দির পরিজনেরা৷ ওই এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং