২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৫ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

ভুয়ো শংসাপত্র দেখিয়ে কালনা কলেজে শিক্ষকতা! প্রমাণ দাখিল না করা পর্যন্ত বন্ধ বেতন

Published by: Sayani Sen |    Posted: September 25, 2020 9:15 pm|    Updated: September 25, 2020 9:15 pm

An Images

সৌরভ মাজি, বর্ধমান: কালনা কলেজের (Kalna College) এক স্টেট এডেড কলেজ টিচার (স্যাক্ট) ভুয়ো শংসাপত্র দেখিয়ে চাকরি পেয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ (এবিভিপি)-র তরফে এই বিষয়ে কলেজ কর্তৃপক্ষের কাছে স্মারকলিপি দেওয়া হয়েছে। কলেজ কর্তৃপক্ষ কী ব্যবস্থা নিয়েছে তাও জানতে চেয়েছে তারা। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। ইতিমধ্যে গভর্নিং বডির বৈঠক করে ওই শিক্ষকের শংসাপত্র ভুয়ো নয় তা প্রমাণ করতে বলা হয়েছে। কলেজ কর্তৃপক্ষও ঘটনার তদন্ত করছে। পাশাপাশি, বিষয়টি বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকেও জানিয়েছে তারা।

এবিভিপি-র কলেজ ইউনিটের প্রমুখ তন্ময় মালিক জানান, সম্প্রতি তাঁরা জানতে পারেন এই কলেজের ভূগোলের শিক্ষক (স্যাক্ট) অনিমেষ গোস্বামী ইউজিসি-নেট এর শংসাপত্র জাল করে কাজ করছেন। ওই শিক্ষক ২০১৭ সাল থেকে এখানে অতিথি শিক্ষক হিসেবে কাজ করছেন। বর্তমানে স্টেট এডেড কলেজ টিচার বা স্যাক্ট হয়েছেন। তন্ময় বলেন, “আমাদের গর্বের কলেজ কালনা। ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করা হোক। তদন্ত করে ঘটনার সত্য বের করা হোক। প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হোক যাতে কলেজের গরিমা অক্ষুন্ন থাকে।”

[আরও পড়ুন: বাংলা থেকে ৫১২ টন চাল নিয়ে এই প্রথম ত্রিপুরার উদ্দেশে যাত্রা মালগাড়ির]

কলেজের অধ্যক্ষ তাপস সামন্ত এদিন জানান, ঘটনার বিষয়ে কলেজের পরিচালন সমিতিতে আলোচনা হয়েছে। ওই শিক্ষককে প্রমাণ দাখিল করতে বলা হয়েছে। যতদিন না তিনি প্রমাণ দিতে পারছেন ততদিন ওই শিক্ষকের বেতন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছেন। ওই শিক্ষক প্রমাণ দিতে না পারলে উচ্চশিক্ষা দপ্তরের বিধি মেনে পদক্ষেপ করবে কর্তৃপক্ষ। অভিযুক্ত শিক্ষকের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়। তবে তাঁকে ফোনে পাওয়া যায়নি।

[আরও পড়ুন: অবৈধ নির্মাণের প্রতিবাদ করে দোকান খুলতে যাওয়ার মাসুল, প্রৌঢ়ার উপর ‘হামলা’ বিজেপির]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement