২৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  রবিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আচমকা ধসে পড়ল বেলিয়াঘাটা প্ল্যাটফর্মের একাংশ। বুধবার সকালে এই ঘটনায় স্টেশন চত্বরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। ঘটনায় ব্যাহত হয় ট্রেন চলাচল।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বারাসাত-হাসনাবাদ শাখার বেলিয়াঘাটা স্টেশনের প্লাটফর্মের অবস্থা অনেকদিনই খারাপ। ঘূর্ণিঝড় বুলবুল আছড়ে পড়ার দিনই প্রায় পাঁচ ফুটের মতো ধস নেমেছিল প্লাটফর্মের পাশের অংশে। মঙ্গলবার রাত থেকেই সেই ধস বড় আকার ধারণ করে। বুধবার সকালে প্ল্যাটফর্মের মাটি ধসে যায়। জানা গিয়েছে প্ল্যাটফর্মের প্রায় ৫০ ফুটের উপর জমি ধসে গিয়েছে। ঘটনার জেরে এলাকায় ব্যাপক আতঙ্ক ছড়ায়। বেশ কিছুক্ষণের জন্য ব্যাহত হল ট্রেন চলাচল।

[আরও পড়ুন : নজরে বাংলা, এবার খড়গপুর উপনির্বাচনে প্রার্থী দিল শিব সেনা]

অভিযোগ, বেলিয়াঘাটা স্টেশন সমতল থেকে প্রায় ৩০ থেকে ৪০ ফুট উপরে। এমনিতেই সাধারণ মানুষের এই স্টেশন থেকে ট্রেন ধরতে সমস্যা হয়। বহুবার রেল কর্তৃপক্ষকে এই সমস্যার কথা সাধারণ মানুষ জানিয়েছেন। অভিযোগ, প্রতিশ্রুতি ছাড়া আর কোনও কাজ হয়নি। ফলে অসুবিধা নিয়েই তাঁদের ট্রেন ধরতে হত। আজকের এই ঘটনা আরও বড় সমস্যার সৃষ্টি করল।

সোমবার সকালে শিয়ালদহের জগৎ সিনেমার সামনের রাস্তায় ধস নেমেছিল। ধস বিশালাকার হওয়ায় এপিসি রোডের ওপরে মানিকতলা থেকে শিয়ালদহমুখী রাস্তা বন্ধ করে দেওয়া হয়। যে সমস্ত গাড়ির শিয়ালদহ যাওয়ার কথা ছিল, তাদের আমহার্স্ট স্ট্রিট দিয়ে ঘুরিয়ে দেওয়া হয়েছিল। একইভাবে ঘোরানো হয়েছিল শিয়ালদহ থেকে মানিকতলামুখী গাড়িও। বিধান সরণি, সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউ রাস্তা দিয়ে ঘোরানো হয় বলে কলকাতা পুলিশ জানিয়েছিল। সাময়িকভাবে রাস্তা বা প্ল্যাটফর্মে ধস সামাল দেওয়া গেলেও কেন মাঝেমধ্যেই ধস নামছে, তা নিয়ে উছঠে প্রশ্ন। স্থানীয় প্রশাসনের দিকেই অভিযোগের আঙুল তুলেছেন স্থানীয়রা। 

[আরও পড়ুন :শতবর্ষ পেরিয়ে প্রয়াত ঠাকুমা, ঢাকঢোল বাজিয়ে শেষ যাত্রায় নাতিরা ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং