BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

প্রচার মিছিলে কটূক্তি, মেজাজ হারিয়ে তৃণমূল কর্মীকে ‘মার’ বাবুলের

Published by: Sayani Sen |    Posted: April 11, 2019 5:54 pm|    Updated: April 22, 2019 3:28 pm

An Images

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, দুর্গাপুর:  রোড শো চলাকালীন বিজেপি প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়কে কটূক্তি করার অভিযোগ৷ তা শুনে আচমকা মেজাজ হারালেন আসানসোলে গেরুয়া শিবিরের তারকা প্রার্থী৷ তৃণমূল কর্মীকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠল বাবুল সুপ্রিয়র বিরুদ্ধে৷ তাতে সঙ্গত করেন বিজেপি কর্মী, সমর্থকরাও৷ নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ দায়ের করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব৷ যদিও গেরুয়া শিবিরের তরফে এই অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে৷ 

[ আরও পড়ুন: ফের বিশ্ব দরবারে সেরা রাজ্যের প্রকল্প, রাষ্ট্রসংঘে পুরস্কৃত ‘উৎকর্ষ বাংলা’, ‘সবুজ সাথী’]

রানিগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রের অন্ডাল থানা এলাকায় নির্বাচনী প্রচার করছিলেন আসানসোল কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়। মূলত রোড শোয়ের মাধ্যমেই প্রচার হয় এদিন। অন্ডালের হরিশপুর থেকে শুরু হয় রোড শো। সেই বিতর্কিত গানটিও বাজানো হয়৷ রোড শো থেকে বাবুল সুপ্রিয় তৃণমূলের নামে কটাক্ষ করতে থাকেন৷ এসময় তৃণমূলের এক কর্মী প্রার্থীর উদ্দেশে বলেন, ‘‘তুমিও তো চোর। চৌকিদারের সঙ্গী।’’ ভিড়ের মাঝে এই কটূক্তি বাবুল সুপ্রিয়র কানে না গেলেও, পরে ফের বাধার মুখে পড়তে হয় তাঁকে। রোড শো ধান্ডাডিহি গ্রাম ঘোরার পর এক জায়গায় বাবুল ও বিজেপি কর্মীরা বিশ্রাম নিতে দাঁড়ান। সেই সময়ই ধান্ডাডিহি গ্রামের বাসিন্দা তৃণমূল কর্মী দিব্যেন্দু রায় বাবুলের উদ্দেশে বলেন,“অনেক হয়েছে, এবার বেরিয়ে যান।’’

তাতেই ক্ষুব্ধ হন বিজেপি প্রার্থী। তিনি তার প্রতিবাদ করেন এবং ওই তৃণমূল কর্মীকে মারধরও করেন বলেও অভিযোগ৷ একা প্রার্থীই নন৷ অন্যান্য বিজেপি কর্মীরাও দিব্যেন্দুকে মারধর করতে শুরু করেন৷ যদিও পরে বিজেপি প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়ই তাঁকে উদ্ধার করেন৷

BABUL-SUPRIYO

[ আরও পড়ুন: প্রথম দফার ভোটে ‘গণতন্ত্রের হত্যা’, তৃণমূলের বিরুদ্ধে কমিশনে নালিশ বিজেপির]

তৃণমূলের অন্ডাল ব্লক সভাপতি অলোক মণ্ডল বলেন, “বিজেপি প্রার্থী দলের নামে কুৎসা করে বেড়াচ্ছেন। তারই প্রতিবাদ করেছে তৃণমূল কর্মী। তাতেই চটে গিয়ে প্রার্থী স্বয়ং মারধর করেছেন আমাদের দলের কর্মীকে। আমরা থানায় অভিযোগ দায়ের করব প্রার্থীর বিরুদ্ধে।” তৃণমূলের জেলা তৃণমূল সভাপতি ভি শিবদাসন দাশু বলেন,“ ধান্ডাডিহিতে প্রচারের সময় বিজেপি প্রার্থী আমাদের দলের দুই কর্মীকে মারধর করেছেন। উনি বিভিন্ন এলাকায় গুন্ডাগিরি করছেন। এইভাবেই প্রচারে আসতে চাইছেন। তবে আমরা তাঁকে অযথা প্রচারের আলোয় আসতে দেব না। দলীয়ভাবে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে, এই ঘটনার প্রতিবাদে কী করা যায়।”

তবে মারধরের ঘটনা অস্বীকার করেন আসানসোলের বিজেপি প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়৷ পালটা তিনি বলেন,“মাফিয়া ও গুন্ডাদের নিয়ে তৃণমূল বিরোধীদের মারধর করে ভয় দেখানোর চেষ্টা করছে। এইভাবে সন্ত্রাসের পরিবেশ সৃষ্টি করে ভোটে জেতার কৌশল পঞ্চায়েত কিংবা নিগম বা কর্পোরেশনে করা গেলেও লোকসভায় করা যাবে না। আর আমাকে ভয় দেখিয়ে কোন লাভ নেই। উলটে শাসকদলই ভয় পেয়ে যাবে। এই ভোটে দেওয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে বলেই ওরা গুন্ডাগিরি শুরু করেছে।” এই ঘটনার পর থেকে থমথমে গোটা এলাকা৷ যেকোনও রকম অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে নিরাপত্তায় জোর দিয়েছে পুলিশ৷

ছবি: উদয়ন গুহ রায়

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement