BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ধর্ষণের পর প্রমাণ লোপাট করতেই শ্বাসরোধ করে খুন? ক্যানিংয়ে তরুণীর দেহ উদ্ধারে ঘনীভূত রহস্য

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: September 13, 2020 3:14 pm|    Updated: September 13, 2020 4:25 pm

An Images

দেবব্রত মণ্ডল, বারুইপুর: মাতলা ব্রিজ সংলগ্ন এলাকা থেকে তরুণীর গলায় ফাঁস দেওয়া দেহ উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল ক্যানিংয়ে (Canning)। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, তরুণীকে ধর্ষণের পর প্রমাণ লোপাটের জন্য খুন করা হয়েছে। ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ইতিমধ্যেই ২ যুবককে আটক করেছে পুলিশ। 

ঘটনার সূত্রপাত রবিবার সকালে। এদিন দক্ষিণ ২৪ পরগনা (South 24 Pargana) জেলার ক্যানিং থানার মাতলা ব্রিজ সংলগ্ন শ্যামাকলোনি এলাকায় অজ্ঞাতপরিচয় তরুণীর দেহ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। খবর পেয়ে ক্যানিং থানার পুলিশ দেহটি উদ্ধার করে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসকরা এই তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এই ঘটনার তদন্ত শুরুর  কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই তরুণীর সম্পর্কে একাধিক তথ্য পায় পুলিশ। জানা যায়, জীবনতলা থানা এলাকার বাসিন্দা ওই তরুণী। দীর্ঘদিন ধরেই এলাকার এক যুবক উত্যক্ত করত তাঁকে। এই নিয়ে একাধিকবার অশান্তি হয়েছে। যুবকের থেকে মুচলেখাও নেওয়া হয়েছে। কিন্তু লাভ কিছুই হয়নি।

[আরও পড়ুন: গোঘাটে গাছ থেকে উদ্ধার বিজেপি কর্মীর ঝুলন্ত দেহ, অভিযোগের তিরে বিদ্ধ শাসকদল]

মৃতার পরিবারের কথায়, শনিবার সন্ধেয় ফের ফোন করে তরুণীকে ডেকে পাঠায় ওই যুবক। এরপরই বাড়ি থেকে বের হন তরুণী। তারপর আর বাড়ি ফেরেননি। একাধিক জায়গায় খোঁজ করেও হদিশ না মেলায় রাতেই জীবনতলা থানায় অভিযোগ দায়ের করে পরিবার। সকালে মাতলা ব্রিজ সংলগ্ন এলাকা থেকে মেলে তরুণীর দেহ। পুলিশের অনুমান, পরিকল্পনামাফিক তরুণীকে ডেকে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে অভিযুক্ত। এরপর প্রমাণ লোপাটের জন্য শ্বাসরোধ করে খুন করা হয় তাঁকে। পুলিশ সূত্রে খবর, ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ইতিমধ্যেই এলাকার দুই যুবককে আটক করা হয়েছে। তাঁদের জেরা করেই রহস্যভেদের চেষ্টা চলছে। 

[আরও পড়ুন: মাছের বদলে মৎস্যজীবীর জালে উঠে এল কুমির! ক্যামেরাবন্দি করতে হুড়োহুড়ি স্থানীয়দের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement