BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

গোঘাটে গাছ থেকে উদ্ধার বিজেপি কর্মীর ঝুলন্ত দেহ, অভিযোগের তিরে বিদ্ধ শাসকদল

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: September 13, 2020 9:54 am|    Updated: September 13, 2020 11:19 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পুরুলিয়ার পর হুগলির (Hoghly) গোঘাট। ফের বিজেপি কর্মীকে খুন করে দেহ গাছে ঝুলিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। রবিবার সকালে গোঘাট স্টেশন সংলগ্ন একটি গাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে গণেশ রায় নামে এক বিজেপি কর্মীর ঝুলন্ত দেহ। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় গোঘাট থানার পুলিশ। দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানোর তোড়জোড় চলছে। ঘটনা ঘিরে সকাল থেকে উত্তপ্ত গোঘাট স্টেশন সংলগ্ন এলাকা।

স্থানীয় সূত্রে খবর, গণেশ রায় এলাকায় সক্রিয় বিজেপি (BJP) কর্মী হিসেবেই পরিচিত ছিলেন। পরিবারের সদস্যরা জানাচ্ছেন, শনিবার বিকেল থেকে নিখোঁজ হয়ে যান গণেশবাবু। আজ সকালে স্টেশনের কাছে গাছে ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। তাঁর ছেলের অভিযোগ, বাবাকে খুন করে গাছে দেহ ঝুলিয়ে দেওয়ার পিছনে তৃণমূলেরই হাত রয়েছে। যদিও স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব সমস্ত অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে। গোঘাট থানায় খুনের অভিযোগ দায়ের করতে চলেছে মৃত গণেশ রায়ের পরিবার। ঘটনার পর এলাকার বিজেপি কর্মীরা ক্ষোভে ফুঁসছেন। তাঁরা আরামবাগ-মেদিনীপুর যাওয়ার রাস্তা অবরোধ করেন।

HGL-Road-block

আতঙ্কিত এলাকাবাসীও। পুলিশ যদিও বিষয়টি নিয়ে এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া দেয়নি। সরেজমিনে খতিয়ে দেখে গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে তাঁরা।

[আরও পড়ুন: বালুরঘাটে চারা রোপণ প্রকল্পেও লাখ টাকার দুর্নীতি! কাঠগড়ায় তৃণমূলের পঞ্চায়েত প্রধান]

স্বাধীনতা দিবসে পতাকা উত্তোলন নিয়ে বচসার জেরে হুগলির আরামবাগের নতিবপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় খুন হয়ে যান বিজেপি পঞ্চায়েত সদস্য। তা নিয়ে তীব্র রাজনৈতিক উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়। প্রতিবাদে পরেরদিন আরামবাগে ১২ ঘণ্টার বনধ ডেকে খুনের বিচারের দাবিতে সরব হয়ে ওঠে স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব। এরপর ফের আজ গোঘাটের ঘটনা। তবে এই ঘটনার সঙ্গে অনেকেই মিল পাচ্ছেন গত পঞ্চায়েত ভোটের আগে পুরুলিয়ায় তিন বিজেপি কর্মীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধারের। সেবার দুলাল কুমার ও ত্রিলোচন মাহাতো নামে দুই যুব কর্মীকে একই কায়দায় খুন করে দেহ গাছে ঝুলিয়ে দেওয়ার ঘটনা ঘটেছিল। অভিযোগ উঠেছিল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। এবারও তাই।

[আরও পড়ুন: ব্রিজ তৈরির জন্য অধিগ্রহণ হতে পারে মসজিদের জমি, খবর ছড়াতেই তুমুল অশান্তি শান্তিপুরে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement