BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

টাকা দিতে রাজি না হওয়ায় শিলনোড়া দিয়ে থেঁতলে স্ত্রীকে খুন! নৃশংসতার সাক্ষী রায়গঞ্জ

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: September 8, 2020 4:36 pm|    Updated: September 8, 2020 4:36 pm

An Images

শংকরকুমার রায়, রায়গঞ্জ: দাবি মতো টাকা না পাওয়ায় শিলনোড়া দিয়ে মাথা থেঁতলে স্ত্রীকে খুন করল স্বামী। মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুরের (North Dinajpur) রায়গঞ্জে। ইতিমধ্যেই দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ।

রায়গঞ্জের তাহেরপুরের বাসিন্দা ওই বধূর নাম কামনা সিকদার। সংসারের অভাব ঘোচাতে ৪ বাড়িতে পরিচারিকার কাজ করতেন তিনি। স্বামী সুজন সিকদারের এলাকায় একটি সেলুন রয়েছে। জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার দুপুরে মাইনের ২৩০০ টাকা নিয়ে বাড়ি ফেরেন কামনাদেবী। ঘরে ঢোকার মুখেই তাঁর পথ আটকায় সুজন। স্ত্রীর কাছে থাকা টাকা চান তিনি। কিন্তু কিছুতেই তা দিতে রাজি হননি কামনাদেবী। অভিযোগ, সেই কারণেই বাড়ির উঠোনে রাখা নোড়া নিয়ে স্ত্রীর মাথায় আঘাত করে। শিলের উপর ফেলে থেঁতলে দেয় স্ত্রীর মাথা। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় বধূর। আর্তনাদে প্রতিবেশীরা ছুটে গিয়ে দেখেন রক্তাক্ত অবস্থায় বারান্দায় পড়ে ওই বধূ।

[আরও পড়ুন: হাই কোর্টে বড় জয়, কেন্দ্রের গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযানে পুরুলিয়ার নাম অন্তর্ভুক্তির নির্দেশ]

এরপরই ওই বধূকে নিয়ে যাওযা হয় স্থানীয় হাসপাতালে। সেখানেই চিকিৎসকরা জানান, মৃত্যু হয়েছে তাঁর। ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। জানা গিয়েছে, বরাবরই মদ, জুয়ায় ডুবে থাকত সুজন। সেই কারণে নিত্য টাকার জন্য কামনাকে চাপও দিত। স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে খবর, ২০১৮ সালেও টাকার জন্যই স্ত্রীকে খুনের চেষ্টা করেছিল সুজন। সেই সময় কোনওক্রমে প্রাণে বেঁচেছিলেন কামনা।

[আরও পড়ুন: অন্তঃসত্ত্বার পেটে লাথি, নষ্ট গর্ভস্থ ভ্রূণ, অমানবিক ঘটনায় নাম জড়াল তৃণমূল অঞ্চল সভাপতির]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement