৪ ফাল্গুন  ১৪২৬  সোমবার ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo দিল্লি ২০২০ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

ব্রতদীপ ভট্টাচার্য: বধূর শ্লীলতাহানির ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত উত্তর ২৪ পরগনার হালিশহর। অভিযুক্ত যুবকের বাড়িতে ভাঙচুরের পর আগুন ধরিয়ে দেয় স্থানীয়রা। পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতে ঘটনাস্থলে যায় বীজপুর থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। অশান্তি মিটলেও এখনও থমথমে এলাকা।

জানা গিয়েছে, হালিশহরের ১২ নম্বর ওয়ার্ডের লক্ষ্মীনারায়ণ কলোনির বাসিন্দা নির্যাতিতা ওই বধূ। বুধবার সকালে স্বামী কাজে বেরিয়ে যাওয়ার পর বাড়িতে একাই ছিলেন তিনি। অভিযোগ, সেই সময় এলাকারই বাসিন্দা বিশু দাস নামে বছর ২৪-এর এক যুবক তাঁর ঘরে ঢুকে পড়ে। মহিলার শ্লীলতাহানি করে সে। বাধা দিলে ধারালো অস্ত্র দিয়ে বধূকে কোপ দেয় অভিযুক্ত। এরপর মহিলার চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে আসতেই চম্পট দেয় বিশু।

halishara-2

[আরও পড়ুন: ‘৫০ লক্ষ অনুপ্রবেশকারীকে দেশ ছাড়া করব’, কোচবিহারের সভা থেকে হুঁশিয়ারি দিলীপের]

এরপরই ক্ষোভ ফুঁসতে শুরু করে এলাকার বাসিন্দারা। অভিযু্ক্তের বাড়িতে চড়াও হন তাঁরা। সেখানে ব্যাপক ভাঙচুর চালানো হয়। এরপরই অভিযুক্তের বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয় স্থানীয়রা। পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতে ঘটনাস্থলে যায় বীজপুর থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে তাঁদের ঘিরেও বিক্ষোভ দেখায় স্থানীয়রা। দীর্ঘক্ষণ পর আয়ত্বে আসে পরিস্থিতি। পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে। অভিযুক্ত খোঁজ চলছে। অবিলম্বেই তাকে গ্রেপ্তার করা হবে। অভিযুক্তের কঠোরতম শাস্তির দাবি জানিয়েছেন নির্যাতিতার পরিবারের সদস্যরা। 

[আরও পড়ুন: ছেলের চিকিৎসা চালিয়ে নিঃস্ব, মহকুমা শাসকের কাছে স্বেচ্ছামৃত্যুর আবেদন বৃদ্ধার]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং