১ কার্তিক  ১৪২৬  শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১ কার্তিক  ১৪২৬  শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

দেবব্রত মণ্ডল, বারুইপুর: বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের প্রতিবাদ করায় স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ উঠল যুবকের বিরুদ্ধে। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিংয়ের ঘোষপাড়ায়। সূত্রের খবর ইতিমধ্যেই মৃতার স্বামীকে গ্রেপ্তার করেছে ক্যানিং থানার পুলিশ।

[আরও পড়ুন: ‘দিদিকে বলো’ কর্মসূচিতে গ্রামে সারপ্রাইজ ভিজিট বিধায়কের, ঘরে ঘরে গিয়ে শুনলেন সমস্যা]

মৃতার পরিবার সূত্রে খবর, কয়েক বছর আগে ক্যানিংয়ের ঘোষ পাড়ার বাসিন্দা তাপস সাউ-এর সঙ্গে বিয়ে হয় শিখা নামে ওই তরুণীর। অভিযোগ, বিয়ের কিছু দিন পর থেকেই তাদের মধ্যে অশান্তি শুরু হয়। তাপস স্ত্রীকে মারধর করত বলেও জানান মৃতার মা। অত্যাচার সহ্যের সীমা পেরলে বাবা-মাকে গোটা বিষয়টি জানান ওই তরুণী। সূত্রের খবর, সেই সময়ই শিখা বাড়িতে জানিয়েছিল অন্য একটি মেয়ের সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক রয়েছে তাপসের। আর সেই বিষয়টি জানতে পেরে গিয়েছিলেন শিখা। তারপর থেকেই প্রতিবাদ করেন শিখা। অভিযোগ, এরপর থেকেই স্ত্রীর উপর অত্যাচার শুরু করে তাপস।

জানা গিয়েছে, দিন সাতকে আগে ফের প্রবল অশান্তি বাধে দম্পতির মধ্যে। অভিযোগ, সেই সময়ই কেরোসিন ঢেলে স্ত্রীর গায়ে আগুন লাগিয়ে দেয় তাপস। বধূর আর্তনাদ শুনে স্থানীয়রা তাঁকে উদ্ধার করে দগ্ধ অবস্থায় ক্যানিং হাসপাতালে ভরতি করে। সেখানেই চিকিৎসা চলছিল শিখার। কিন্তু অবশেষে মৃ্ত্যুর কাছে হার মানলেন ওই বধূ। সোমবার ভোররাতে হাসপাতালেই মৃত্যু হয় তাঁর। সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই অভিযুক্ত তাপসকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: সমুদ্র সৈকত থেকে উদ্ধার দিঘায় নিখোঁজ শিশুর দেহ, শোকস্তব্ধ পরিবার]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং