BREAKING NEWS

১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

স্বামী ও সতীনের অত্যাচারে জর্জরিত গৃহবধূ, ‘রেহাই’ পেতে তিন সন্তানকে নিয়ে ঝাঁপ দিলেন ক্যানালে

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: October 17, 2021 6:03 pm|    Updated: October 17, 2021 6:39 pm

A woman of farakka attempted suicide on Sunday | Sangbad Pratidin

শাহাজাদ হোসেন, ফরাক্কা: স্বামী ও সতীনের অত্যাচারের হাত থেকে বাঁচার চেষ্টা। তিন সন্তানকে নিয়ে ফিডার ক্যানালে (Farakka Feeder Canal) ঝাঁপ দিলেন মহিলা। ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র উত্তেজনা ছড়িয়েছে ফরাক্কায়। ইতিমধ্যেই উদ্ধারকারীরা মহিলা ও তাঁর দুই সন্তানকে উদ্ধার করতে সক্ষম হলেও বেপাত্তা এক খুদে। তার খোঁজে এখনও চলছে তল্লাশি।

জানা গিয়েছে, ওই মহিলার নাম রিনা বিবি। স্বামী সইদুর রহমান। মুর্শিদাবাদের সামশেরগঞ্জের তিনপাকুড়িয়ার বাবুপুরে থাকতেন ওই দম্পতি। তাঁদের তিন সন্তান রয়েছে। অভিযোগ, সইদুর কোনওদিনই কাজকর্ম বিশেষ করতেন না। রিনাই বিড়ি বেঁধে সংসার চালাতেন। এদিকে স্বামীর দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রীর সঙ্গেও বনিবনা ছিল না রিনার। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রায়দিনই অশান্তি হত ওই দম্পতির মধ্যে। সইদুর ও তার দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রী একজোট হয়ে মারধর করতেন রিনাকে। সেই অত্যাচার সহ্য করে না পেরে রবিবার দুপুরে সন্তানদের নিয়ে আন্ধুয়ায় ফিডার ক্যানালে ঝাঁপ দেন রিনা। স্থানীয়রা বিষয়টি দেখতে পাওয়ায় সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয় পুলিশ।

[আরও পড়ুন: ঝিলের ধারে সেলফি তুলতে গিয়ে জলে তলিয়ে মৃত্যু বালিগঞ্জের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রের]

তড়িঘড়ি উদ্ধার কাজ শুরু হয়। কিছুক্ষণের মধ্যেই উদ্ধার হয় রিনা ও তাঁর দুই সন্তান। তবে হদিশ মেলেনি তাঁর পাঁচবছরের আরেক সন্তানের। এখনও তার খোঁজে চালানো হচ্ছে তল্লাশি। উদ্ধারের পরই মহিলা ও তাঁর সন্তানদের নিয়ে যাওয়া হয়েছে স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে। বর্তমানে সেখানেই রয়েছেন তাঁরা।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সাংসারিক অশান্তি থেকে মুক্তি পেতেই সন্তানের নিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন রিনা। কিন্তু বরাত জোরে প্রাণ বেঁচেছে তাঁর। এখন নিখোঁজ সন্তানের চিন্তা গ্রাস করেছে রিনাকে।

[আরও পড়ুন: খড়দহে প্রয়াত কাজল সিনহার বাড়িতে BJP প্রার্থী, আশীর্বাদ করে বিতর্কে বিধায়কপত্নী]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে