BREAKING NEWS

৯ আষাঢ়  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মদ্যপান নিয়ে অশান্তির জের, মালবাজারে স্ত্রীকে খুনের অভিযোগে ধৃত স্বামী

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: June 5, 2021 1:32 pm|    Updated: June 5, 2021 1:33 pm

A woman of Malbazar allegedly killed by her husband, accused arrested | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী

অরূপ বসাক, মালবাজার: মদ্যপান নিয়ে অশান্তির জের। স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে খুনের অভিযোগ উঠল স্বামীর বিরুদ্ধে। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে মালবাজারে (Malbazar)। অভিযুক্তকে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে উত্তেজিত জনতা। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে মালবাজার পুলিশ।

জানা গিয়েছে, মৃত বধূর নাম বসুমতি তালুকদার। স্বামী আশুতোষ ও সন্তানদের নিয়ে মালবাজারের গজোলডোবার ৭ নম্বরে থাকতেন তিনি। শনিবার সকালে প্রতিবেশীরা হঠাৎই ঘরে বধূর দেহ পড়ে থাকতে দেখেন। সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয় পুলিশে। সেই সময় বাড়িতেই ছিলেন মৃতার স্বামী। ঘটনার নেপথ্যে তার যোগ রয়েছে, এই সন্দেহ করে তাকে আটকে রাখেন প্রতিবেশীরা। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দেহটি উদ্ধার করে। বধূকে খুনের অভিযোগে গ্রেপ্তার করে তাঁর স্বামীকে। প্রতিবেশীদের কথায়, মৃতা খুব সংসারী ছিলেন। কিন্তু আশুতোষ প্রায়ই মদ্যপান করে এসে স্ত্রীর উপর অত্যাচার করত। কোনও উপার্জনও ছিল না তার। বসুমতি জ্বালানি সংগ্রহ করে কোনওক্রমে সংসার চালাতেন। মদ্যপান নিয়ে প্রায়ই ওই দম্পতির মধ্যে অশান্তিও হতো। স্ত্রীকে মারধরও করত আশুতোষ।

[আরও পড়ুন: বকেয়া ৫ হাজার কোটি টাকা এখনই দিন, নির্মলা সীতারমণকে চিঠি অমিত মিত্রর]

স্থানীয়দের অভিযোগ, শুক্রবার রাতেও মদ্যপ অবস্থায় বাড়ি ফেরে আশুতোষ। এরপরই বসুমতির সঙ্গে বচসা শুরু হয় তার। সেই সময়ই শ্বাসরোধ করে স্ত্রীকে খুন করে ওই যুবক। পুলিশের দাবি, ইতিমধ্যেই জেরায় অশান্তির কথা স্বীকার করে নিয়েছে আশুতোষ। তবে তার দাবি, সে খুন করেনি। ধৃতের দাবি, শনিবার সকালে ঘুম থেকে উঠে সে দেখতে পায় যে আত্মঘাতী হয়েছে স্ত্রী। যদিও শাস্তি থেকে বাঁচতে মিথ্যে বলছে আশুতোষ, এমনটাই দাবি প্রতিবেশীদের। পুলিশের তরফে ইতিমধ্যেই দেহটি ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট এলেই মৃত্যুর কারণ স্পষ্ট হবে বলে জানিয়েছেন তদন্তকারীরা। তদন্তের স্বার্থে প্রতিবেশীদের সঙ্গেও কথা বলা হবে বলেও জানানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন: বিজেপিকে বয়কটের ডাক দেয়নি তৃণমূল, কেশপুরের লিফলেট কাণ্ডে দাবি সাংসদ দেবের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement