৬ ফাল্গুন  ১৪২৬  বুধবার ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যুবককে পিটিয়ে খুনের অভিযোগ উঠল শ্বশুরবাড়ির সদস্যদের বিরুদ্ধে। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে হুগলির বৈদ্যবাটি এলাকায়। শনিবার যুবকের দেহ এলাকায় ফিরতেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন এলাকার বাসিন্দারা। দীর্ঘক্ষণ রাস্তা আটকে বিক্ষোভ দেখান। পরে শেওড়াফুলি ফাঁড়ির পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি আয়ত্তে আনে।

জানা গিয়েছে, বৈদ্যবাটির আদর্শনগরের বাসিন্দা ওই যুবকের নাম সুব্রত রাহা। বছর দেড়েক আগে এলাকারই এক তরুণীর সঙ্গে বিয়ে হয় তাঁর। বিয়ের পর থেকেই অশান্তি শুরু হয় ওই দম্পতির মধ্যে। অশান্তির জেরে কয়েকদিন আগে বাপের বাড়ি ফিরে যায় ওই তরুণী। মেয়ে ফিরে যাওয়ার পর গত সপ্তাহে জামাইকে ডেকে পাঠান ওই তরুণীর বাবা। নিজের অনুষ্ঠান বাড়িতে ওই যুবককে আটকে লাঠি রড দিয়ে বেধড়ক মারধর করে শ্বশুর। গুরুতর জখম অবস্থায় তাঁকে ভরতি করা হয় এসএসকেএম হাসপাতালে। শুক্রবার রাতে সেখানেই মৃত্যু হয় ওই যুবকের।

[আরও পড়ুন: ‘বিজেপিকে আটকানোই পুলিশের একমাত্র কাজ’, অভিনন্দন যাত্রায় বাধা পেয়ে তোপ দিলীপের]

যুবকের মৃত্যুর খবর এলাকায় পৌঁছতেই ক্ষোভে ফেটে পড়ে এলাকার বাসিন্দারা। দেহ নিয়ে বৈদ্যবাটি-তারকেশ্বর রোডের চৌমাথা এলাকায় বিক্ষোভ দেখান তাঁরা। মৃতের শ্বশুরবাড়ির সদস্যদের গ্রেপ্তারির দাবিও জানান। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনাস্থলে যায় বিশাল পুলিশ বাহিনী। দীর্ঘক্ষণ পর ওঠে অবরোধ। পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু করা হয়েছে। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে এলে গোটা বিষয়টি স্পষ্ট হবে। যদিও এবিষয়ে এখনও মৃতার স্ত্রী ও তাঁর শ্বশুরবাড়ির সদস্যদের কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং