২৭ আশ্বিন  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৫ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: গোয়েন্দা বিভাগের আধিকারিকের ছেলেকে পিটিয়ে খুনের ঘটনাকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্র চেহারা নিল পুরুলিয়ার কর্পূরবাগান-বোঙাবাড়ি এলাকা। দফায় দফায় বিক্ষোভ অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে পুরুলিয়া-বরাকর রাজ্য সড়ক। ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তার করা হয়েছে ২ জনকে। 

[আরও পড়ুন: শিশুমৃত্যুর অভিযোগ নিতে অস্বীকার পুলিশের, প্রতিবাদে পথ অবরোধ নিহতের পরিজনের]

পুরুলিয়ার ২১ নম্বর ওয়ার্ডের কর্পূরবাগান এলাকার বাসিন্দা অরিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। তাঁর বাবা বিবেকানন্দ গঙ্গোপাধ্যায় পুরুলিয়া জেলা গোয়েন্দা শাখার আধিকারিক। জানা গিয়েছে, কিছুদিন ধরেই পুরুলিয়ার বোঙাবাড়ি এলাকার বাসিন্দা অরিজিতের এক বন্ধু এলাকার কয়েকজনের সঙ্গে ঝামেলায় জড়িয়ে পড়েছিল। ক্রমেই জটিল হচ্ছিল পরিস্থিতি। এরপর ওই যুবক অরিজিৎকে গোটা বিষয়টি জানায়। এরপর বৃহস্পতিবার সকালে বোঙাবাড়ি এলাকায় যান অরিজিৎ। যাদের সঙ্গে তাঁর বন্ধুর অশান্তি চলছিল তাদের সঙ্গে কথা বলেন। এরপর বাড়ি ফিরে আসেন তিনি। পরে বিকেলে আবার অরিজিতের ওই বন্ধুর কাকা তাঁকে ডেকে পাঠায়। জানায় ফের অশান্তি শুরু হয়েছে বোঙাবাড়িতে। এরপর ফের বোঙাবাড়ি যান অরিজিৎ। অভিযোগ, সেখানে গেলে একটি ঘরে আটকে বেধড়ক মারধর করা হয় অরিজিৎকে। ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানোও হয় তাঁকে। এরপর আশঙ্কাজনক অবস্থায় অরিজিতের ওই বন্ধুর পরিবারের সদস্যরা তাঁকে দেবেন মাহাতো সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। রাতে সেখানেই মৃত্যু হয় অরিজিতের।

arijit
মৃত অরিজিৎ

এরপরই ক্ষোভে ফেটে পড়েন কর্পূরবাগানের বাসিন্দারা। রাতেই এলাকায় দীর্ঘক্ষণ বিক্ষোভ দেখায় স্থানীয়রা। পরে শুক্রবার সকালে বোঙাবাড়ি এলাকার বাসিন্দারা কর্পূরবাগানে ব্যক্তিগত কাজে গেলে তাঁদের মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। এরপর সেই খবর বোঙাবাড়ি এলাকায় পৌঁছতেই পুরুলিয়া-বরাকর রাজ্যসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায় স্থানীয়রা। সাতসকালে রাজ্যসড়কে বিক্ষোভের ফলে ব্যাহত হয় যানচলাচল। সূত্রের খবর, অরিজিৎ খুনের ঘটনার তদন্তে নেমে ইতিমধ্যেই তাঁর বন্ধুর কাকাকে আটক করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তার করা হয়েছে ২ জনকে। পুরুলিয়ার পুলিশ সুপার আকাশ মাঘারিয়া জানিয়েছেন, তদন্ত শুরু হয়েছে।

ছবি-সুনীতা সিং

[আরও পড়ুন: পড়াশোনার বালাই নেই, ছাউনিঘেরা অঙ্গনওয়াড়ির আকর্ষণ শুধুই মিড-ডে মিল]

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং