১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ঘুমন্ত অবস্থায় বাবা-মাকে খুন, গ্রেপ্তার ‘গুণধর’ ছেলে

Published by: Sayani Sen |    Posted: September 25, 2019 11:09 am|    Updated: September 25, 2019 1:43 pm

A youth allegedly killed his parents in North 24 Pargana's Sodepur

আকাশনীল ভট্টাচার্য, বারাকপুর: ঘুমন্ত অবস্থায় ভারী বস্তু দিয়ে মাথায় আঘাত করে বাবা-মাকে পিটিয়ে খুনের অভিযোগ উঠল ছেলের বিরুদ্ধে। নৃশংস এই ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার সোদপুরের নাটাগড়ে। নিহতদের ছেলেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তবে ঠিক কী কারণে বাবা-মাকে খুন করল সে, তা নিয়ে এখনও জারি ধোঁয়াশা।

[আরও পড়ুন: পুজোর মুখে পুরুলিয়ার দুয়ারসিনির জঙ্গলে উদ্ধার মাওবাদী পোস্টার, বাড়ছে আতঙ্ক]

বছর পঁয়ষট্টির সুনীল সাহা এবং ষাট বছর বয়সি শেফালি সাহার একমাত্র ছেলে অমিত। সে পেশায় সেলসম্যান। সপ্তাহের অন্যান্য দিনের মতো মঙ্গলবারও নির্দিষ্ট সময়ে বাড়ি ফেরে অমিত। বাবা-মায়ের সঙ্গে বসে খাওয়াদাওয়াও করে সে। এরপর যে যার ঘরে ঘুমোতে চলে যায়। বাবা-মা ঘুমিয়ে পড়লে অমিত তাঁদের ঘরে যায়। অভিযোগ, ঘুমন্ত অবস্থায় বাবা-মায়ের মাথায় ভারী বস্তু দিয়ে আঘাত করে সে। রক্তাক্ত অবস্থায় চিৎকার করতে শুরু করেন অমিতের বাবা-মা। গভীর রাতের নিস্তব্ধতা ভেঙে প্রতিবেশীদের কানে গিয়ে পৌঁছায় তাঁদের আর্তনাদ। তড়িঘড়ি দৌড়ে আসেন তাঁরা। প্রতিবেশীরা দেখেন, বিছানায় রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছেন সুনীল এবং শেফালি। পাশেই নির্বিকার অমিত। তার সারা শরীরে রক্তের দাগও দেখতে পান প্রতিবেশীরা।

[আরও পড়ুন: ঘূর্ণাবর্ত-নিম্নচাপের জেরে দিনভর ভারী বৃষ্টির আশঙ্কা, ব্যাহত পুজোর প্রস্তুতি]

প্রতিবেশীরাই অমিতের বাবা-মাকে উদ্ধার করে পানিহাটি স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিছুক্ষণের মধ্যেই দু’জনকেই মৃত বলে ঘোষণা করেন। চিকিৎসকদের দাবি, ভারী বস্তু দিয়ে আঘাতের জেরে প্রচণ্ড রক্তক্ষরণ হয়, তার জেরেই মৃত্যু হয় দু’জনের। ঘোলা থানার পুলিশ অমিতকে গ্রেপ্তার করেছে। তবে কী কারণে সে তার বাবা-মাকে খুন করেছে, তা নিয়ে ধোঁয়াশায় পুলিশ। প্রতিবেশীদের জিজ্ঞাসাবাদ করে কারণ খোঁজার চেষ্টা করছেন তদন্তকারীরা।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে