BREAKING NEWS

২৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  শনিবার ১০ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

তৃণমূল নেত্রী বীরবাহা হাঁসদাকে করা কটূক্তির জন্য ক্ষমা চাইতে পারবেন মোদি-শাহ-শুভেন্দু? চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন অভিষেক

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: November 15, 2022 6:41 pm|    Updated: November 15, 2022 6:54 pm

Abhishek Banerjee slams PM Modi, Amit Shah and SuvendU Adhikari | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বীরবাহা হাঁসদা ও দেবনাথ হাঁসদাকে কুরুচিকর ভাষায় আক্রমণ! প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও রাজ্যের বিরোধী দলনেতাকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishk Banerjee)। তিনি বলেন, “অখিল গিরির মন্তব্যের জন্য তো মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো নিজে ক্ষমা চেয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীরা পারবেন?”  শুভেন্দু অধিকারীকে মানসিক ভারসাম্যহীন বলেও কটাক্ষ করেন অভিষেক। 

সম্প্রতি রাষ্ট্রপতি সম্পর্কে আপত্তিকর মন্তব্য করেছিলেন তৃণমূল বিধায়ক অখিল গিরি। তা নিয়ে কার্যত শোরগোল গোটা দেশে। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে তুমুল উত্তেজনার পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। ভিনরাজ্যেও তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। অখিল গিরির এই মন্তব্যের জন্য দুঃখপ্রকাশ করেন, ক্ষমা চান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মঙ্গলবার ডায়মন্ড হারবারে প্রশাসনিক বৈঠক শেষে সাংবাদিক বৈঠকে সেই প্রসঙ্গ তুলেই মোদি, শাহ ও শুভেন্দুকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন অভিষেক। বললেন, “আমরা কেউ অখিল গিরির মন্তব্যের সমর্থন করি না। মুখ্যমন্ত্রীও ক্ষমা চেয়েছেন।” এরপরই বীরবাহা হাঁসদা প্রসঙ্গে শুভেন্দু অধিকারীর মন্তব্য তুলে ধরেন তিনি।

[আরও পড়ুন: ঝাড়গ্রামে আদিবাসীদের মাঝে মমতা, মুখ্যমন্ত্রীকে পাশে পেয়ে অভাব-অভিযোগ জানালেন বাসিন্দারা]

বলেন, “উনি কি বলেছেন? বীরবাহা হাঁসদাদের জুতোর তলায় রাখেন! তার মানে গোটা তপশিলি জাতি-উপজাতির মানুষকে অপমান করেছেন রাজ্যের বিরোধী দল নেতা। তাহলে এর জন্য কি ক্ষমা চাইতে পারবেন মোদি, শাহ?” চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে প্রশ্ন করেন, “ক্ষমতা আছে? সাহস হবে?” এছাড়াও একাধিক ইস্যুতে বিজেপি নেতাদের তুলোধোনা করেন অভিষেক। 

প্রসঙ্গত, অখিল গিরির মন্তব্যকে কেন্দ্র করে উত্তেজনার মাঝেই তৃণমূলের তরফে একটি ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছিল। সেখানে শুভেন্দু অধিকারীকে বীরবাহা হাঁসদাদের কটাক্ষ করে বলতে শোনা যায়, “এই যেগুলা বসে আছে সেগুলো শিশু। এই দেবনাথ হাঁসদা, বীরবাহা এরা সব শিশু। আমার জুতোর নীচে থাকে।” 

[আরও পড়ুন: বইয়ের গুদামে ছাগলের চাষ! মল-মূত্র মেশা বই যাচ্ছে পড়ুয়াদের হাতে, ক্ষুব্ধ অভিভাবকরা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে