২৭ কার্তিক  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৪ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৭ কার্তিক  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৪ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

পলাশ পাত্র ও সন্দীপ মজুমদার: পুলওয়ামার জঙ্গি হামলায় বাংলার ২ শহিদ পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে রাজ্য সরকার। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে সবরকমভাবে তাঁদের সাহায্য করা হচ্ছে। তারই মধ্যে ব্যক্তিগতভাবে দুটি পরিবারকে সাহায্য করলেন তৃণমূল সাংসদ তথা দলের যুব সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। শহিদ বাবলু সাঁতরা এবং সুদীপ বিশ্বাসের পরিবার ২ লক্ষ টাকা করে আর্থিক সাহায্য পেলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের তরফে।

[বজবজে কাউন্সিলর খুনের ঘটনায় গ্রেপ্তার ২ মূল অভিযুক্ত]

শনিবার বিকেলে নদিয়ার পলাশিপাড়ার হাঁসপুকুরিয়ায় শহিদ সিআরপিএফ জওয়ান সুদীপ বিশ্বাসের বাড়ি পৌঁছন তৃণমূলের সোশ্যাল সেলের যুগ্ম আহ্বায়ক তথা প্রাক্তন সেনাকর্তা কর্নেল দীপ্তাংশু চৌধুরি। সঙ্গে ছিলেন স্থানীয় বিধায়ক তাপস সাহা। প্রথমে বাড়ির সামনে সুদীপের মালা দেওয়া ছবিতে শ্রদ্ধা জানান তাঁরা। এরপর সুদীপের মা মমতা বিশ্বাস এবং বাবা সন্ন্যাসী বিশ্বাসের হাতে তুলে দেওয়া হয় ২ লক্ষ টাকার চেক। দলের তরফে সবরকমভাবে তাঁদের পাশে থাকার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। পরিবারের একজনকে চাকরি দেওয়ার কথা আগেই ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেইমতো আগেই সুদীপ বিশ্বাসের পরিবারের সঙ্গে কথা বলে গিয়েছেন রাজ্যের কারিগরি শিক্ষামন্ত্রী উজ্জ্বল বিশ্বাস। রাজ্য সরকারের তরফে ৫ লক্ষ টাকার চেকও দেওয়া হয় তাঁদের। শনিবার আবারও তৃণমূল সাংসদের ব্যক্তিগত অর্থ সাহায্য পৌঁছাল তাঁদের কাছে। এদিন সাংবাদিকদের দীপ্তাংশু চৌধুরি জানিয়েছেন, দলের প্রত্যেকে শহিদ পরিবারগুলির পাশে রয়েছে। আর্থিক সাহায্য ছাড়াও যদি অন্য কোনও সাহায্যের প্রয়োজন হয় এই পরিবারগুলির, তার সমাধানে সদা তৎপর দল। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই সাহায্য পেয়ে তাঁর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছে শহিদ সুদীপ বিশ্বাসের পরিবার। সুদীপের নিকট আত্মীয় সমাপ্ত বিশ্বাস জানিয়েছেন, ‘উনি যে আমাদের কথা ভেবে, এভাবে সাহায্য পৌঁছে দিলেন এবং পাশে দাঁড়ালেন, তাতে আমরা কৃতজ্ঞ। ভরসাও ফিরে পাচ্ছি। সবরকমভাবে যে প্রশাসন আমাদের পাশে আছে, তা দেখে স্বস্তি বোধ করছি।’

[আসন সমঝোতার ভিত্তিতে রায়গঞ্জে প্রার্থী দেবে সিপিএম, কংগ্রেসকে বার্তা বিমানের]

অন্যদিকে,  সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের তরফে উলুবেড়িয়ার শহিদ সিআরপিএফ জওয়ান বাবলু সাঁতরার পরিবারের হাতে শনিবার ২ লক্ষ টাকার চেক তুলে দেওয়া হয়। জওয়ানের বাড়ি গিয়ে আর্থিক সাহায্য দিয়ে আসেন শ্রম দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী ডাঃ নির্মল মাজি, আমতা-২ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি সুকান্ত পাল এবং কর্নেল দীপ্তাংশু চৌধুরি। এদিন তাঁরা বাবলু সাঁতরার বাউড়িয়া চককাশীর বাড়িতে গিয়ে বাবলুর মা বনমালা সাঁতরা ও স্ত্রী মিতা সাঁতরার সঙ্গে কথা বলেন তাঁরা। বাবলু সাঁতরার মেয়ের পড়াশোনা বিষয়েও খোঁজখবর নেন। গত বুধবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শহিদ বাবলু সাঁতরার পরিবারের একজনকে সরকারি চাকরি ও ৫ লক্ষ টাকা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেন। সেইমতো বৃহস্পতিবারই এই শহিদ পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন রাজ্য মন্ত্রিসভার দুই সদস্য রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় ও অরূপ রায়। তাঁরা বাবলুর স্ত্রীকে চাকরি দেওয়ার কথা সরকারিভাবে পরিবারটিকে জানান। একই সঙ্গে পাঁচ লক্ষ টাকার চেক বাবলুর মায়ের হাতে তুলে দেন। এরপর শনিবার তৃণমূলের তরফে তাঁদের কাছে আর্থিক সাহায্য পৌঁছে দেওয়া হল।

ulu-help

পুলওয়ামায় শহিদ পরিবারগুলির পাশে দাঁড়াতে আগেই নিজের ৩ মাসের বেতন দিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সেইমতো, ৫ লক্ষ টাকা তিনি পাঠিয়ে দিয়েছেন ইস্টার্ন কমান্ডের সদর দপ্তর ফোর্ট উইলিয়ামে। এখান থেকে তা দিল্লিতে সেনা তহবিলে পাঠানো হবে। আর রাজ্যের দুই শহিদ পরিবারকে তিনি একেবারেই ব্যক্তিগতভাবে সাহায্য করলেন।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং