১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শুক্রবার ৩ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

স্বাস্থ্য দপ্তরের কড়া অবস্থানে নতিস্বীকার, ৩০ ঘণ্টা পর উঠল কর্মবিরতি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 15, 2017 2:01 pm|    Updated: September 19, 2019 1:55 pm

After 30 hours, junior doctors withdraw strike at Burdhan medical college and hospital

সৌরভ মাঝি, বর্ধমান: বর্ধমান মেডিক্যালের সুপারের অনমনীয় মনোভাবে কাছে হার মানলেন জুনিয়র ডাক্তাররা। স্বাস্থ্য দপ্তরের আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারিতে ৩০ ঘণ্টা পর উঠল কর্মবিরতি। শুক্রবার সকালে প্রিন্সিপাল, ডেপুটি প্রিন্সিপালের সঙ্গে বৈঠকের পর, লিখিতভাবে বিক্ষোভকারীদের নিরাপত্তা সংক্রান্ত দাবি মেনে নেওয়ার আশ্বাস দেন সুপার উৎপল দাঁ। কিন্তু, তারপরেও কর্মবিরতিতে অনড় ছিলেন জুনিয়র ডাক্তাররা। সূত্রের খবর, পরিস্থিতি সামাল দিতে আসরে নামে স্বাস্থ্য দপ্তর। বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়। এরপরই বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ সুপারকে লিখিত কর্মবিরতি প্রত্যাহার করে নেওয়ার কথা জানিয়ে দেন হাসপাতালের জুনিয়র ডাক্তাররা।

[জুনিয়র ডাক্তারদের কর্মবিরতি, অচলাবস্থায় ২ শিশুর মৃত্যু বর্ধমান মেডিক্যালে]

বৃহস্পতিবার সকালে একটি শিশুমৃত্যুর ঘটনা কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়িয়েছিল বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে। অভিযোগ, কয়েকজন জুনিয়র ডাক্তারকে হেনস্তা করেন রোগীর বাড়ির লোকেরা। প্রতিবাদে সুপারকে ঘেরাও করে কর্মবিরতি শুরু করে দেন জুনিয়র ডাক্তাররা। রাতে সুপার ঘেরাওমুক্ত হলেও, কর্মবিরতি চলতে থাকে। জুনিয়র ডাক্তারা কাজে যোগ না দেওয়ায়, শুক্রবার সকাল থেকে কার্যত অচল হয়ে পড়ে দক্ষিণবঙ্গের অন্যতম সেরা এই হাসপাতালটি। পরিষেবা না পেয়ে চুড়ান্ত নাকাল হন রোগীরা। এমনকী, দুই শিশুর মৃত্যুও হয়। এরপর গোটা পরিস্থিতি স্বাস্থ্য দপ্তরকে জানান বর্ধমান মেডিক্যালের সুপার উৎপল দাঁ। বারবার বিক্ষোভকারীদের কর্মবিরতি প্রত্যাহার অনুরোধও জানান। কিন্তু, অচলাবস্থা কাটেনি।

[শিকেয় সরকারি সুবিধা, অ্যাম্বুল্যান্স পরিষেবাতেও দেদার কালোবাজারি]

শুক্রবার দুপুরে প্রিন্সিপাল, ভাইস প্রিন্সিপালে্র সঙ্গে বৈঠকে বসেন সুপার উৎপল দাঁ। বৈঠকের পর জুনিয়র ডাক্তারদের লিখিতভাবে দাবি পেশ করতে বলেন তিনি। বিক্ষোভকারীদের লিখিত দাবি হাতে পাওয়ার পর, হাসরাতালে তরফে লিখিতভাবে নিরাপত্তা সংক্রান্ত দাবি মেনে নেওয়ার আশ্বাস দেওয়া হয়। কিন্তু, লিখিত আশ্বাস পাওয়ার পরও কর্মবিরতিতে অনড় ছিলেন জুনিয়র ডাক্তাররা। সূত্রের খবর, জুনিয়র ডাক্তারদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দেয় স্বাস্থ্য দপ্তর। এরপরই কর্মবিরতি প্রত্যাহার করে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন জুনিয়র ডাক্তাররা। তিরিশ ঘণ্টা পর, বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ কাজে যোগ দেন তাঁরা।

[চেনার ভুল! দার্জিলিংয়ের কমলা ভেবে আসলে কী কিনছেন জানেন?]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে