১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৬ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘মমতা সরকারের মৃত্যু ঘণ্টা বেজে গিয়েছে’, বাঁকুড়া থেকে হুঙ্কার অমিত শাহের

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: November 5, 2020 12:37 pm|    Updated: November 5, 2020 12:39 pm

An Images

টিটুন মল্লিক ও রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: বাঁকুড়া (Bankura) পৌঁছেই মমতা সরকারকে একহাত নিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। গরিবি হঠাতে রাজ্য সরকারকে ছুঁড়ে ফেলার পরামর্শ দিলেন বাঁকুড়াাসীকে। বিজেপি ক্ষমতায় এলে কর্মসংস্থানের আশ্বাসও দিলেন তিনি।

বৃহস্পতিবার সাড়ে এগারোটা নাগাদ আকাশপথে বাঁকুড়ায় পৌঁছন অমিত শাহ (Amit Shah)। পূর্বসূচি অনুযায়ী মালদ্যান করেন বিরসা মুণ্ডার মূর্তিতে। সেখানে দাঁড়িয়ে বলেন, “বিরসা মুণ্ডাকে শ্রদ্ধা জানিয়ে বাংলা সফর শুরু করলাম। গতকাল রাত থেকে বাংলার যে প্রান্তেই ছিলাম সব জায়গায় মানুষের উৎসাহ দেখেছি। বিপুল অভ্যর্থনা পেয়েছি। এটা থেকেই স্পষ্ট, মমতা সরকারের প্রতি ভয়ংকর জন আক্রোশ তৈরি হয়েছে। আর মোদির প্রতি তৈরি হয়েছে আশা আর শ্রদ্ধা।” এরপর পুয়াবাগান এলাকা থেকেও রাজ্যের বিরুদ্ধে হুঙ্কার দেন শাহ। বলেন, “মমতা সরকারের মৃত্যু ঘণ্টা বেজে গিয়েছে।” এদিন রাজ্যবাসীকে উদ্দেশ্য করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “বিজেপি সরকার এলে কর্মসংস্থান হবে। বেকার যুবক-যুবতীরা চাকরি পাবে। তাই কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে রাজ্য সরকারকে ছুঁড়ে ফেলুন। বিজেপি ক্ষমতায় এলে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে সোনার বাংলা তৈরি হবে। বাংলায় পরিবর্তন আসন্ন।” রাজ্যকে কাঠগড়ায় তুলে এদিন ফের শাহ বলেন, মমতা সরকারের কারণেই কেন্দ্রের একাধিক প্রকল্পের সুবিধা পাচ্ছেন না প্রান্তিক মানুষেরা। জানা গিয়েছে, পুয়াবাগান থেকে রবীন্দ্র ভবনের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন শাহ।

Amit Shah attacks state govt on thursday.

[আরও পড়ুন: জেলা সভাপতি ‘তৃণমূলের দালাল’, পূর্ব বর্ধমানে প্রকাশ্যেই কাদা ছোঁড়াছুড়ি বিজেপি নেতাদের]

রবীন্দ্র ভবনে বৈঠক ছাড়াও বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। দুপুর ১.৪০ নাগাদ মধ্যাহ্নভোজ সারতে যাবেন এক আদিবাসী পরিবারে। এরপর ৩ থেকে ৫ টা পর্যন্ত রয়েছে একাধিক কর্মসূচি। উল্লেখ্য, বিধানসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করেই বুধবার ২ দিনের বাংলা সফরে এসেছেন অমিত শাহ। এই দুদিনে বিভিন্ন কর্মসূচির পাশাপাশি আদিবাসী ও মতুয়া পরিবারের সঙ্গে দেখা করবেন তিনি। সেখানেই সারবেন মধ্যাহ্নভোজ। ইতিমধ্যেই এই বিষয়টিকে কটাক্ষ করতে শুরু করেছে শাসকদল। তাঁদের কথায়, “বিজেপি কোনওদিনই মতুয়াদের পাশে ছিল না। ভোটের জন্যই এখন মতুয়াদের পাশে দাঁড়াচ্ছে পদ্মশিবির।”

[আরও পড়ুন: রাজ্যে পৌঁছেই মৃত বিজেপি কর্মীর পরিবারের সঙ্গে কথা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর, আজ যাবেন বাঁকুড়া]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement