BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  শনিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

রাজ্যে পৌঁছেই মৃত বিজেপি কর্মীর পরিবারের সঙ্গে কথা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর, আজ যাবেন বাঁকুড়া

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: November 5, 2020 8:59 am|    Updated: November 5, 2020 9:10 am

An Images

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: একুশে বিধানসভা নির্বাচন। তার আগে বাংলার বিজেপিকে চাঙা করতে বুধবার রাতেই শহরে পা রেখেছেন অমিত শাহ  (Amit Shah)। কথা বলেছেন মৃত এক বিজেপি কর্মীর পরিবারের সঙ্গে। আজ, বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় হেলিকপ্টারে কলকাতা থেকে বাঁকুড়ার উদ্দেশ্যে রওনা হবেন তিনি। সেখানে আদিবাসী পরিবারে ডাল-আলুপোস্তোয় মধ্যাহ্ন সারবেন শাহ। এরপর রবীন্দ্র ভবনে বৈঠক করবেন রাঢ়বঙ্গের সাংগঠনিক জেলাগুলির বিজেপি নেতৃত্বের সঙ্গে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে বুধবার দমদম বিমানবন্দরে উপস্থিত ছিলেন কৈলাস বিজয়বর্গীয়, দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh), মুকুল রায়, অনুপম হাজরা-সহ একাধিক বিজেপি নেতা। পূর্বসূচি অনুযায়ী রাত ৯. ০৫ নাগাদ বিমানবন্দরে নামেন অমিত শাহ। পুষ্পবৃষ্টি ও ঢাকঢোল বাজিয়ে তাঁকে বরণ করা হয়। এরপরই মৃত বিজেপি কর্মী মদন ঘড়ুইয়ের পরিবারের সঙ্গে কথা বলেন শাহ। পুলিশের বিরুদ্ধে হেনস্তা ও লাগাতার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ করেন মৃত ওই বিজেপি কর্মীর পরিবার। সব শুনে তাঁদের পাশে থাকার আশ্বাস দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। জানা গিয়েছে, এদিন অমিত শাহের সঙ্গে সাক্ষাত করতে শঙ্কুদেব পণ্ডার সঙ্গে বিমানবন্দরে হাজির হয়েছিলেন মদন ঘড়ুইয়ের ছেলে, বউ ও ভাই। অভিযোগ, বিধাননগর পুলিশ বাধা দেয় তাঁদের। পরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে কথা বললে তাঁদের শাহ’র সঙ্গে দেখা করানোর অনুমতি মেলে। শঙ্কুদেব পণ্ডার দাবি, অমিত শাহই মৃত কর্মীর পরিবারের সঙ্গে দেখা করবেন বলেছিলেন। বৃহস্পতিবারও ময়নাতদন্ত না হলে তা জানানোর নির্দেশ দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

[আরও পড়ুন:জেলা সভাপতি ‘তৃণমূলের দালাল’, পূর্ব বর্ধমানে প্রকাশ্যেই কাদা ছোঁড়াছুড়ি বিজেপি নেতাদের]

উল্লেখ্য, শুক্রবার রাত পর্যন্ত বাংলায় থাকবেন অমিত শাহ। এই দু’দিনে একাধিক কর্মসূচি রয়েছে তাঁর। কিছুক্ষণের মধ্যেই হেলিকপ্টারে বাঁকুড়া যাবেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। সেখানে রবীন্দ্র ভবনে রাঢ়বঙ্গের সাংগঠনিক জেলাগুলির বিজেপি নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি। বিকেলে তাঁর কলকাতা ফেরার কথা। শুক্রবার সকালে দক্ষিণেশ্বর মন্দিরে যাওয়ার কথা শাহের। সেখান থেকে পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তীর বাড়ি যাবেন তিনি। সেখানে তাঁর সঙ্গে একান্ত আলাপচারিতা সারবেন। এরপর তিনি যাবেন বিধাননগরের ইজেডসিসি-তে। সেখানে কলকাতা ও লাগোয়া জেলাগুলির দলীয় নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠক করবেন শাহ। বিকেলে সমাজে বিভিন্ন ক্ষেত্রের মানুষদের সঙ্গে সাক্ষাতের পরিকল্পনা রয়েছে তাঁর। শুক্রবার রাতে কলকাতা ছাড়বেন তিনি।

[আরও পড়ুন:‘বেআইনিভাবে বিক্রি হচ্ছে দুর্গাপুর ব্যারেজের জল’, অভিযোগ আলুওয়ালিয়ার, পালটা দিলেন মেয়র]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement