BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘ডাস্টবিন থেকে এনেছিলাম, কুকুরের মতো তাড়াব’, মনিরুলকে হুঁশিয়ারি অনুব্রতর

Published by: Paramita Paul |    Posted: March 12, 2020 3:12 pm|    Updated: March 12, 2020 5:01 pm

An Images

ভাস্কর মুখোপাধ্যায়, বোলপুর: বারবার তৃণমূল কর্মীরা খুন হলে, দলীয় কর্মীরা চুপ থাকবেন না বলে হুঁশিয়ারি দিলেন অনুব্রত মণ্ডল। সুফল বাগদি খুনের প্রসঙ্গ টেনে এনে অভিযুক্তদের বাড়ি ভাঙচুরেরও হুঁশিয়ারি দেন তিনি। স্বাভাবিকভাবেই তাঁর এ ধরণের মন্তব্যে বিতর্ক ছড়িয়েছে। বুধবারের লাভপুরের ওই জনসভা থেকে নাম না করে মনিরুল ইসলামকেও তুলোধনা করেন বীরভূমের জেলা তৃণমূল সভাপতি। অনুব্রতর কথায়, “ডাস্টবিন থেকে তুলে এনে একজনকে লাভপুরের বিধায়ক করেছিলাম। ভেবেছিলাম, ভাল মানুষ হবে, কাজ করবে।” একইসঙ্গে তাঁর হুমকি, “এবার ভোটে দাঁড়ালে কুকুরকে যে ভাবে তাড়ানো হয়, সেইভাবে তাড়ানো হবে।”

প্রসঙ্গত, চলতি মাসেই বীরভূম-মুর্শিদাবাদ জেলা সীমানা এলাকা থেকে তৃণমূল কর্মী সুফল বাগদীর দেহ উদ্ধার হয়। তাকে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ। তারই প্রতিবাদে বুধবার ওই জনসভার আয়োজন করা হয়েছিল। জনসভায় হাজির ছিলেন তৃণমূলের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল ছাড়াও মৎস্যমন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিংহ, জেলাপরিষদের মেন্টর অভিজিৎ সিংহ, সাংসদ অসিত মাল, বিকাশ রায়চৌধুরি, মান্নান হোসেন, তরুণ চক্রবর্তী-সহ অন্যরা। এদিন অনুব্রত মণ্ডল বলেন, “সুফল বাগদী ভাল কর্মী ছিলেন। ভাল কর্মী থাকলে বিজেপি ভয় পাচ্ছে। যাঁরা খুনের সঙ্গে যুক্ত, তাঁদের কাউকে ছাড়া হবে না।”  একইসঙ্গে তাঁর হুঁশিয়ারি, “লাভপুরের বারবার তৃণমূল কর্মী খুন হবে, মানুষ তা মেনে নেবে না। যে খুন করবে সে পালিয়ে গেলেও মানুষ তার ঘর চারিয়ে মাঠ বানিয়ে দেবে।” 

[আরও পড়ুন : কাটোয়ায় করোনা আতঙ্ক! ৩ ইটালিয় পর্যটকের কর্মসূচি বাতিল করল প্রশাসন]

এরপরই নাম না করে মনিরুল ইসলামের বিরুদ্ধে সরব হন বীরভূমের জেলা তৃণমূল সভাপতি। অনুব্রতর কথায়, “লাভপুরে একজনকে ডাস্টবিন থেকে তুলে এনে বিধায়ক করেছিলেন। সুফলের খুনে এরা যুক্ত হতে পারে। পুলিশ আছে, আইন আছে। ছাড়ব না, আগেও ছাড়িনি এখনও ছাড়ব না।” জনসভা থেকে তিনি চ্যালেঞ্জ করে বলেন, “আগামী বিধানসভা নির্বাচনে লাভপুর থেকে রানা সিংহ দাঁড়ান বা না দাঁড়ান, যেই দাঁড়াবেন তিনি ৬০ হাজারের বেশি ভোটে জিতবেন। লাভপুরে প্রচুর উন্নয়নমূলক কাজ হয়েছে, তৃণমূলের ভোট চাইবার অধিকার আছে।”

[আরও পড়ুন : মাঝ নদীতে ২ জাহাজের মুখোমুখি সংঘর্ষ, বজবজে সলিলসমাধি ‘মমতাময়ী মা’য়ের]

লাভপুরে মনিরুল ইসলাম বিজেপির প্রার্থী হলে কী হবে? প্রশ্নের জবাবে অনুব্রত বলেন, “খুব ভাল হয়। ঈশ্বর ওঁর মঙ্গল করুক। উনি দাঁড়ালে কুকুরকে যে ভাবে তাড়ানো হয়, সেইভাবে তাড়ানো হবে। না দাঁড়ালে ওকে তাড়াতে পারব না।”

দেখুন ভিডিও: 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement