১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কালীপুজোর উদ্বোধনে বাবুল গাইলেন “হটা সাওয়ান কী ঘটা”, থেমে গেল বৃষ্টি

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: October 26, 2019 3:21 pm|    Updated: October 26, 2019 3:22 pm

An Images

চন্দ্রশেখর চট্টোপাধ্যায়, আসানসোল: টানা চারদিনের বৃষ্টিতে পণ্ড হতে বসেছিল কালী পুজো ও দীপাবলি। বৃষ্টি মাথায় নিয়েই শুক্রবার রাতে আসানসোলে কালীপুজোর উদ্বোধনে গিয়ে সেখানকার গায়ক-সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় সুর তুললেন – “হটা সাওয়ান কী ঘটা”। তাতে উদ্বোধন তো জমে গেলই। গানের সঙ্গে সঙ্গে কাকতলীয়ভাবে হলেও বন্ধ হয়ে গেল বৃষ্টি। রাতের বৃষ্টি থেমে গিয়ে শনিবার সকাল থেকেই রোদের মুখ দেখলেন আসানসোলবাসী। গুণমুগ্ধদের ধারণা, গানের আসর থেকে লড়াইযের ময়দান – বাবুল সব পারেন।
কালীমন্দিরে দাঁড়িয়ে বাবুল স্পষ্টই জানিয়ে দিলেন, এবার লক্ষ্য আসানসোল পুরনিগমের ভোট। বললেন, “শাক্তদেবীর কাছেই বলছি আপনাদের শক্তিতে বলীয়ান হয়েই স্বচ্ছ সুন্দর কর্পোরেশন গড়ে তুলবো আমরা।” শাসকদলকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে তিনি গান ধরেন, “তুনে হামে দেখা নেহি, দেখা হে তো জানা নেহি, মুঝে পেহেচানা নেহি, দেখো টকরানা নহি, কিসি সে ভি হারা নেহি, হাম!”

[আরও পড়ুন: নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উলটে গেল বাস, দুর্ঘটনায় জখম ১৫ যাত্রী]

কালীপুজোর চারদিন আগেই দিল্লি থেকে চলে এসেছেন আসানসোলের সাংসদ। কিন্তু বৃষ্টির কারণে কার্যত ঘরবন্দি থাকতে হয়েছে তাঁকে। রানিগঞ্জে সংকল্প যাত্রায় অংশগ্রহণ করার পর মুষলধারে বৃষ্টির জন্য বাতিল করতে হয়েছে জামুড়িয়া, সালানপুর ও অণ্ডালের সংকল্প যাত্রা। এর মধ্যে অবশ্য ‘ইন্ডিয়ান আইডল’-এর প্রতিযোগী দৃষ্টিহীন শিল্পী অবিনাশ বাউরির সঙ্গে দেখা করেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সঙ্গে। তাঁর মনোবল বাড়িয়ে আগামীর শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। বড় মেয়ে শর্মিলী ও দলের কর্মীদের নিয়ে আসানসোলের সেন্ট্রাম মলের কার্নিভ্যাল হলে বসে ‘গুমনামি’ দেখেছেন। শুক্রবার ধনতেরাস উপলক্ষে স্টেশনে দুঃস্থদের নিজের হাতে খিচুড়ি পরিবেশন করে খাইয়েছেন। বস্ত্র বিলি করেছেন।

[আরও পড়ুন: মাঝনদীতে তুমুল বিপর্যয়, ১১ ঘণ্টা লড়াই করে মৃত্যুঞ্জয়ী দুই মাঝি]

শুক্রবার রাতে বারাবনির নুনী সর্বজনীন ২৫ ফুট কালীপুজোয় প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করে উদ্বোধন করেন। সেখানে আতসবাজি ফাটান। এরপর চলে আসেন কুলটির নিষিদ্ধপল্লি এলাকা চবকায়। শক্তিসংঘের কালীপুজোর উদ্বোধন করেন। পুজো উদ্বোধনে এসে সেখানে শাসকদলের নেতাদের একহাত নিয়েছেন বাবুল সুপ্রিয়। অভিযোগ করেন, “এইসব এলাকায় উন্নয়ন নেই, শৌচালয় নেই। আয়ুষ্মান ভারতের স্বাস্থ্য পরিষেবা নিতে পারছেন না আপনারা। শক্তির দেবী কালী মায়ের মন্দিরে দাঁড়িয়ে আহ্বান জানাচ্ছি, আপনাদের শক্তিতে বলীয়ান হয়ে যেভাবে আমাকে দ্বিতীয়বার সাংসদ করেছেন, সেভাবে এবার বিজেপির নেতৃত্বে সুন্দর ও স্বচ্ছ কর্পোরেশন গড়ে তুলবেন।” ফিরে যাওয়ার সময় মজার ছলে বলেন, “সাবধানে দীপাবলি কাটাবেন। নিষিদ্ধ বাজি ফাটাবেন না।” তাঁর কথায়, গানে বৃষ্টিভেজা আবহাওয়াতেও কালীপুজো যেন একেবারে আলোকিত হয়ে উঠল।

দেখুন ভিডিও:

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement