৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘সবাইকে ফেরাতে বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা হচ্ছে’, আসানসোলবাসীকে আশ্বাস সাংসদ বাবুলের

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: May 12, 2020 9:30 pm|    Updated: May 12, 2020 9:35 pm

An Images

চন্দ্রশেখর চট্টোপাধ্যায়, আসানসোল: ভিনরাজ্যে আটকে পড়া আসানসোল-দুর্গাপুরের বাসিন্দাদের জন্য স্পেশ্যাল ট্রেনের ব্যবস্থা করা হচ্ছে, ফেসবুক পোস্টে আসানসোলবাসীকে এমনটাই জানালেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। সাংসদের এই উদ্যোগকে কটাক্ষ করে পালটা ফেসবুক পোস্ট করলেন মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারি।

কেউ পড়াশুনার জন্য, কেউ বেড়াতে গিয়ে, কেউ বা কাজ করতে গিয়ে টানা লকডাউনে ভিনরাজ্যে আটকে পড়েছেন। বাবুল সুপ্রিয়র কথায়, ঘরে ফিরতে চেয়ে রাজ্যের নোডাল অফিসারদের টোল ফ্রি নম্বরে যোগাযোগ করতে না পেরে এমন অনেক আটকে পড়া আসানসোল-দুর্গাপুরের মানুষ যোগাযোগ করেছিলেন তাঁর সঙ্গে। কেউ সাংসদের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে ট্যাগ করে বা টুইট করে নিজের নিজের দুর্দশার কথা জানিয়েছিলেন। সেই আবেদনে সাড়া দিয়ে বাবুল সুপ্রিয় ফেসবুক পোস্ট করে জানালেন তাঁর সংসদীয় এলাকার মানুষদের ফেরাতে জন্য স্পেশ্যাল ট্রেনের ব্যবস্থা করবেন তিনি। বাবুল তাঁর পোস্টে লেখেন, “আসানসোল-দুর্গাপুরের কত মানুষ এখনও বাড়ি ফিরতে চাইছেন সেই সংখ্যাটা নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েছে। আমি আপনাদের অনুরোধ করছি আমার আসানসোলের অফিসের নম্বরে (০৩৪১-২৩১২২২২) ফোন করে নিজেদের নাম নথিভুক্ত করুন”। ওই পোস্টে তিনি উল্লেখ করে দেন যে, তাঁর এই প্রচেষ্টা নিয়ে কেউ রাজনৈতিক কথাবার্তা লিখলে তাঁকে ব্লক করে দেওয়া হবে। পাশাপাশি, বিরোধীদের কটাক্ষের পরিবর্তে আটকে পড়া আত্মীয়-পরিজনদের নাম নথিভুক্ত করার আবেদন জানান।

[আরও পড়ুন: দুঃসময়ে দুস্থদের অন্নদান, সারা বছরের রোজগার দিয়ে দরিদ্র নারায়ণ সেবা পোস্টমাস্টারের]

babul-post

সাংসদ এই বিষয়ে পোস্ট করার পরই বহু মানুষ সরাসরি তাঁর টাইমলাইনে ঘর ফেরানোর আবেদন করেন। আসানসোল -দুর্গাপুরের পাশাপাশি ভিন জেলার মানুষরাও বাবুলকে ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ করেছেন। তবে এই পোস্টকে কটাক্ষ করেছেন মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারি।

babul-post-reax

পালটা দিয়ে তিনি ফেসবুকে লেখেন, “রাজ্য সরকার অনেক আগেই হেল্পলাইন নম্বর প্রকাশ করে ভিনরাজ্যে আটকে থাকা শ্রমিক, পর্যটক, পড়ুয়াদের ফিরিয়ে নিয়ে এসেছেন। সেক্ষেত্রে আপনার বিলম্বিত বোধদয় হল। এইসব ঘটে যাওয়ার আগে আপনাকে পাশে পেলে ভাল লাগত।”

[আরও পড়ুন: লকডাউনের জের, সাইকেলে উত্তরপ্রদেশ থেকে বর্ধমান ফিরলেন ৫ পরিযায়ী শ্রমিক]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement