১৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ৬ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বুথ লাগোয়া মাঠ থেকে উদ্ধার ব্যালটের কাউন্টার পার্ট, চাঞ্চল্য ছড়াল কুমারগঞ্জে

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 25, 2018 6:29 pm|    Updated: May 25, 2018 6:29 pm

Ballot papers found dumped near South Dinajpur school

রাজা দাস, বালুরঘাট: পঞ্চায়েত ভোট মিটেছে। কিন্তু, স্কুলের পিছনে এখনও পড়ে শ’তিনেক ব্যালট পেপারের অংশ বা কাউন্টার পার্ট! ব্যালটের কাউন্টার পার্ট নিয়ে প্রশাসনের দ্বারস্থ বিরোধীরা। তাঁদের অভিযোগ, পঞ্চায়েত ভোটে ওই বুথে কারচুপি করেছে শাসকদল। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ দিনাজপুরের কুমারগঞ্জে।

[হদিশ নেই ২৬ ব্যালট বক্সের, মুর্শিদাবাদে পঞ্চায়েত ভোটের পর থেকে তল্লাশি]

লোকসভা, বিধানসভা ও পুর নির্বাচনে ইভিএমের বোতাম টিপে ভোট দেন নাগরিকরা। কিন্তু, পঞ্চায়েত ভোট হয় ব্যালট পেপারে। নিয়ম অনুয়ায়ী,  ব্যালট পেপারের একটি অংশে  ছাপ মেরে ব্যালট বক্সে ফেলে দেন ভোটাররা। অন্য অংশটি জমা দিতে হয় সংশ্লিষ্ট বুথের প্রিসাইডিং অফিসারকে। পঞ্চায়েত ভোটের দিন দশেক পর, ব্যালট পেপারের সেই কাউন্টার পার্ট মিলল বুথ লাগোয়া মাঠে। দক্ষিণ  দিনাজপুরের কুমারগঞ্জের দিওর পানাউল্লা উচ্চ বিদ্যালয়ের পিছনে মাঠে পড়েছিল ব্যালট পেপারের শ’তিনেক কাউন্টার পার্ট।

কুমারগঞ্জ ব্লকের দিওর পঞ্চায়েতের অধীনে ১৩টি গ্রাম সংসদ। শুক্রবার সকালে পশ্চিম দিওর সংসদের একটি বুথের পিছনের মাঠে মিলল ব্যালট পেপারের শ’তিনেক কাউন্টার পার্ট। ওই গ্রাম  সংসদের ১৫৫ নম্বর বুথ ছিল দিওর পানাউল্লা উচ্চ বিদ্যালয়। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, এদিন সকালে স্কুলে পিছনের মাঠে খেলতে গিয়ে প্রথম ব্যালটের কাউন্টার পার্টগুলি দেখতে পায় এলাকার শিশুরা। বিষয়টি জানাজানিতে হতে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। ঘটনাস্থলে যান জেলা পরিষদের কংগ্রেস প্রার্থী বিপ্লব মণ্ডল-সহ বিরোধী দলের নেতা-কর্মীরা। ব্যালটের কাউন্টার পার্টগুলি সংগ্রহ করেন তাঁরা। কংগ্রেসের জেলা পরিষদ প্রার্থী বিপ্লব মণ্ডল বলেন, ১৪ মে সকালে ভোটগ্রহণ শুরু হতেই দিওর পানাউল্লা উচ্চ বিদ্যালয়ে বুথটি দখল করে দেদার ছাপ্পা ভোট দিচ্ছিলেন শাসকদলের কর্মীরা। খবর দেওয়া হয় বিডিও। বেশ কিছুক্ষণ ভোটগ্রহণ বন্ধ ছিল। শেষপর্যন্ত যখন জানানো হয় ব্যালট পেপার শেষ, তখনও লাইনে প্রায় শ’তিনেক ভোটার।

[মহিষাদলে দেখা মিলল ট্যারান্টুলার, আতঙ্কে স্থানীয় বাসিন্দারা]

এদিকে আবার ওই বুথে পিছনের মাঠ থেকে কমিশনে ছাপমারা বাণ্ডিলে ৩০০টি ব্যালটের কাউন্টার পার্টই উদ্ধার হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বিরোধীদের অভিযোগ, ছাপ্পা ভোটের কারণেই ব্যালট পেপার শেষ হয়ে গিয়েছিল। পরে যখন শাসকদলের কর্মীরা ব্যালট পেপার নিয়ে পালাচ্ছিলেন, তখনই অসাবধানতাবশতই সেগুলি পড়ে যায়। কুমারগঞ্জ ব্লক প্রশাসনের কাছে অভিযোগ জানিয়েছে বিরোধীরা।

[প্রেমিকার বিয়ের খবরে আত্মহত্যার চেষ্টা প্রেমিকের, শাঁখা-পলা খুলেই হাসপাতালে ছুটলেন তরুণী]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে