BREAKING NEWS

১৩ মাঘ  ১৪২৭  বুধবার ২৭ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

পরিত্যক্ত বাড়ির সেপটিক ট্যাঙ্ক থেকে উদ্ধার মহিলার দেহ, ক্যানিংয়ে চাঞ্চল্য

Published by: Suparna Majumder |    Posted: November 25, 2020 10:33 am|    Updated: November 25, 2020 1:17 pm

An Images

ছবি: প্রতীকী

দেবব্রত মণ্ডল, বারুইপুর:  সেপটিক ট্যাঙ্ক থেকে উদ্ধার হল অজ্ঞাত পরিচয় এক মহিলার দেহ। ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার (South 24 Paraganas) ক্যানিং এলাকায়।

মঙ্গলবার রাতে ঘটনাটি ঘটে ক্যানিং এলাকায় কড়াকাটি গ্রামে। জানা গিয়েছে, বহুদিন ধরেই এলাকায় একটি পরিত্যক্ত বাড়ি ছিল। মালিক বাড়িটি কিনে ফেলে রেখেছিলেন। পরে তা আবার বিক্রি হয়ে যায়। বর্তমানে বাড়ির মালিক অনুপ গুপ্ত। তিনি ঠিক করেন, বাড়িটিকে নিজের মতো করে সাজিয়েগুছিয়ে নেবেন। তাতে কাজ করাবেন। সেই মতো কিছু শ্রমিককে দিয়ে কাজ শুরু করেন। কাজ শুরু করার পর সেপটিক ট্যাঙ্ক পরিষ্কার করার প্রয়োজন হয়ে পড়ে। ট্যাঙ্ক পরিষ্কার করার কাজের দায়িত্ব পড়ে লেবার মিস্ত্রি ছোট্টু নস্করের উপর।

[আরও পড়ুন: প্রথম স্ত্রীর কথা গোপন করে ফের বিয়ে, পণের দাবিতে অত্যাচার! চরম পরিণতি নাবালিকা বধূর]

নির্দেশ পেয়ে জল পরিষ্কার করার জন্য ট্যাঙ্কে নামেন ছোট্টু। ভিতরে যেতেই তাঁর চক্ষু চড়কগাছ। ট্যাঙ্কের ভিতরে এক মহিলার মৃতদেহ দেখতে পান তিনি। সঙ্গে সঙ্গে ক্যানিং (Canning) থানার পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। খবর পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ। মহিলার দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়। মহিলার পরিচয় সংক্রান্ত কোনও নমুনা ঘটনাস্থলে পাওয়া যায়নি। মৃতদেহ দেখে তাঁর বয়সও বোঝা সম্ভব হয়নি। ময়নাতদন্তের রিপোর্টের অপেক্ষায় পুলিশ। 

[আরও পড়ুন: ‘জিটিএ’র অডিট হওয়া উচিত, সরকারি টাকা নয়ছয় হলেই শাস্তি’, কড়া হুঁশিয়ারি ধনকড়ের]

ক্যানিং থানার পুলিশের পক্ষ থেকে ঘটনার সম্পূর্ণ তদন্তের আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। বাড়ির আশেপাশের এলাকায় একপ্রস্থ জিজ্ঞাসাবাদও চালানো হয়েছে। বর্তমান মালিক অনুপ গুপ্তর কাছেও বাড়িটির বিষয়ে নানা প্রশ্ন করেছে পুলিশ। পরিত্যক্ত বাড়িতে কে বা কারা আসত? সেই বিষয়েও জানার চেষ্টা করছে পুলিশ। সাধারণত এমন পরিত্যক্ত বাড়ি অনেক অনৈতিক কাজকর্মের আঁতুরঘর হয়। সেই দিকটিও পুলিশের পক্ষ থেকে খতিয়ে দেখা হচ্ছে।  

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement