BREAKING NEWS

৫ মাঘ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১৯ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘জিটিএ’র অডিট হওয়া উচিত, সরকারি টাকা নয়ছয় হলেই শাস্তি’, কড়া হুঁশিয়ারি ধনকড়ের

Published by: Suparna Majumder |    Posted: November 24, 2020 8:34 pm|    Updated: November 24, 2020 8:34 pm

An Images

দীপঙ্কর মণ্ডল: নিজের টুইটের ধারা অব্যাহত রেখেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় (Jagdeep Dhankhar)। এবার গোর্খাল্যান্ড টেরিটোরিয়াল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (GTA)-এর অডিট নিয়ে মুখ খুললেন তিনি। মঙ্গলবার সস্ত্রীক কালিম্পংয়ের একটি বৌদ্ধ মন্দিরে যান রাজ্যপাল। মন্দির থেকে বেরিয়ে তিনি বলেন, “জিটিএ-সহ সমস্ত সরকারি প্রতিষ্ঠানের অডিট হওয়া উচিত। সরকারি টাকা নয়ছয় করলে শাস্তি হবে। আইনের ঊর্ধ্বে কেউ নয়।” নিজের বক্তব্যের ভিডিও টুইট করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Mamata Banerjee) ট্যাগও করেন ধনকড়।

[আরও পড়ুন: ‘চাকরি দিতে না পারায় কর্মীদের ধর্ষক হওয়ার অনুমতি দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী!’, বিস্ফোরক অগ্নিমিত্রা পল]

পাহাড়ে গোর্খাল্যান্ড (Gorkhaland) রাজ্যের দাবি বেশ পুরনো। জিটিএ এখন আধা স্বায়ত্তশাসিত এলাকা। তবু এখনও আলাদা রাজ্যের দাবির কথা মাঝে মধ্যে শোনা যায়। রাজ্যপাল এখন দার্জিলিংয়ের (Darjeeling) রাজভবনে আছেন। গোটা নভেম্বর মাস তিনি সেখানেই থাকবেন। কালিম্পংয়ে এদিন তিনি বলেন, “রেলওয়ে স্টেশনে বিমান ধরা যায় না। সমস্ত সমস্যার সমাধান আছে। রাজ্য সরকার, কেন্দ্রীয় সরকার অথবা সংসদে সমস্যার সমাধান হতে পারে।”

একদিন আগে রাজ্যের পুলিশ প্রশাসনকে কটাক্ষ করে ধনকড় দাবি করেছিলেন, আমলা ও পুলিশ দুর্নীতি রুখতে পারছে না। টুইটারে তাঁর দাবি ছিল, “দুর্নীতির ঘাঁটিগুলিকে ধ্বংস না করলে গণতন্ত্র বাঁচবে না। দুর্নীতিকে মূল থেকে উচ্ছেদ করতে হবে।” বরাবরই রাজ্যের বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে সরব হন রাজ্যপাল। দুর্নীতির আঁতুরঘর ভেঙে গণতন্ত্র রক্ষা করতে হবে বলেও মন্তব্য করেন ধনকড়। এদিন একই সুরে তিনি বলেন, “সমস্ত সরকারি সম্পত্তির অডিট হওয়া দরকার। অডিটে যদি দুর্নীতি ধরা পড়ে তাহলে অবশ্যই শাস্তি হবে। আপনাদের রাজ্যপাল মুখে যা বলে তা কাজেও করে।”

[আরও পড়ুন: ‘বাড়িতে অস্ত্র রাখুন, তৃণমূলের গুন্ডারা অত্যাচার করলে মেরে চামড়া গুটিয়ে দিন’, নিদান রাজু’র]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement