Advertisement
Advertisement
Bangladesh like incident in West Bengal Deity idol vandalised at Swarupnagar

স্বরূপনগরে বাংলাদেশের ছায়া, দেবদেবীর মূর্তি ভাঙচুরে ব্যাপক উত্তেজনা

কে বা কারা এই কাণ্ড ঘটাল, তা জানা যায়নি।

Bangladesh like incident in West Bengal, Deity idol vandalised at Swarupnagar । Sangbad Pratidin
Published by: Sayani Sen
  • Posted:November 17, 2021 9:43 am
  • Updated:November 17, 2021 10:28 am

গোবিন্দ রায়, বসিরহাট: উত্তর ২৪ পরগনার স্বরূপনগরে (Swarupnagar) বাংলাদেশের ছায়া। দেবদেবীর মূর্তি ভাঙচুরকে কেন্দ্র করে ছড়াল উত্তেজনা। কে বা কারা মূর্তি ভাঙচুর করল, তা এখনও জানা যায়নি। স্বরূপনগর থানার পুলিশ ক্ষতিগ্রস্ত মূর্তিগুলি বাজেয়াপ্ত করেছে। কারা এই কাণ্ড ঘটিয়েছে, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। 

সামনেই রাস উৎসব। সে কারণে প্রতিমা তৈরির কাজ চলছিল। বুধবার সকালে স্বরূপনগরের সারাপুলের বাসিন্দারা ঘুমঘোর কাটার পরই অবাক হয়ে যান। তাঁরা দেখেন, রাসপুজো উপলক্ষে তৈরি করা দেবদেবীর মূর্তি ভেঙে ফেলা হয়েছে। কোনও দেবদেবীর মাথা কাটা তো কারও হাত ভাঙা। এই দৃশ্য দেখে স্বাভাবিকভাবেই উত্তেজনা ছড়ায়। ভাবাবেগে আঘাতের অভিযোগ তোলেন স্থানীয়রা। বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন তাঁরা। 

Advertisement

[আরও পড়ুন: Weather Update: নিম্নচাপের ধাক্কা কাটিয়ে বঙ্গে ফের স্বমহিমায় শীত, ৬ দিন পর কমল তাপমাত্রা]

ঘটনার খবর পায় স্বরূপনগর থানার পুলিশও। প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই খবর পেয়েই পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছয়। স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলেন পুলিশকর্মীরা। ক্ষতিগ্রস্ত দেবদেবীর মূর্তিগুলি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। কে বা কারা এই কাজ করল, তা এখনও জানা যায়নি। পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখছে। এই ঘটনার প্রতিবাদে সরব বসিরহাট বিজেপি সাংগঠনিক জেলার যুব সভাপতি পলাশ সরকার।

Advertisement

উল্লেখ্য, গত  অক্টোবর বাংলাদেশের (Bangladesh) কুমিল্লা মহানগরীর নানুয়ার দিঘিরপাড় পুজোমণ্ডপে কোরান রাখা নিয়ে মন্দিরে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় কুমিল্লার বিভিন্ন থানায় ৯ মামলায় ৭৯১ জনকে আসামি করা হয়। এর মধ্যে কোতয়ালি মডেল থানায় পাঁচটি, কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানায় দু’টি এবং দাউদকান্দি ও দেবীদ্বার থানায় একটি করে মামলা হয়েছে। ৯১ জনের নাম উল্লেখ করে মামলায় ৭০০ অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিকে আসামি করা হয়েছে। এ পর্যন্ত ৪৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। মণ্ডপের আশপাশ-সহ নগরীর বেশ কয়েকটি এলাকার সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করে ইকবালকে শনাক্ত করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। সেই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই ফের স্বরূপনগরেও ঘটল একই কাণ্ড। যার ফলে স্বাভাবিকভাবেই উত্তেজনা ছড়িয়েছে। 

[আরও পড়ুন: স্বপ্নপূরণের লড়াই, হামাগুড়ি দিয়ে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে হাজির পড়ুয়া]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ