BREAKING NEWS

১৭  মাঘ  ১৪২৯  বুধবার ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

মমতার নির্দেশমতোই কাজ, রেশন বণ্টনে হস্তক্ষেপের অভিযোগে বিষ্ণুপুরের পুরপ্রধানকে শোকজ

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: June 27, 2020 1:31 pm|    Updated: June 27, 2020 2:17 pm

Bankura TMC sends showcause notice to three leaders accussed of disturbing ration distribution

টিটুন মল্লিক, বাঁকুড়া: দলের সুপ্রিমোর নির্দেশমতো কাজে নেমে পড়ল তৃণমূল নেতৃত্ব। রেশনে ত্রাণসামগ্রী বণ্টন ব্যবস্থায় হস্তক্ষেপ করার অভিযোগ পেয়েই বিষ্ণুপুর পৌরসভার পৌরপ্রধান তথা বিষ্ণুপুর ব্লক সভাপতি শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় এবং দলের আরও দুই নেতাকে শোকজ (Showcause) করল বাঁকুড়া জেলা তৃণমূল। বিষ্ণুপুর ব্লক সভাপতির পাশাপাশি কারণ দর্শানোর নোটিস পেয়েছেন তালড্যাংরার তাপস সুর ও পাত্রসায়ের ব্লকের নেতা বাবলু সিং। দলীয় সূত্রে খবর, এই তিন নেতার বিরুদ্ধে রেশন ব্যবস্থায় হস্তক্ষেপ করার অভিযোগ উঠেছিল। তাঁদের বিরুদ্ধে শুরু হয়েছে দলীয় তদন্ত।

রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ত্রাণবণ্টন নিয়ে তৃণমূল নেতাদের বিরুদ্ধে ভুরি ভুরি দুর্নীতির অভিযোগ আসছিল দলের শীর্ষ নেতৃত্বের কাছে। এরপরই তা নিয়ে কড়া পদক্ষেপের পথে হাঁটে রাজ্যের শাসকদল। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) নির্দেশ দেন, কোনও অভিযোগ পাওয়ামাত্রই শোকজ করা হবে অভিযুক্তকে। পরে দলীয় তদন্তে দোষ প্রমাণ হলে, আরও কড়া শাস্তি। দল থেকে বহিষ্কার পর্যন্ত করা হতে পারে অভিযুক্ত নেতাকে। সে যে যত বড় নেতাই হোক না কেন, দুর্নীতি হলে ছাড় নেই কারও। দলের সুপ্রিমোর সেই নির্দেশ জেলাস্তরে পৌঁছে দেন সুব্রত বক্সি, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়রা।

[আরও পড়ুন: বিজেপি সমর্থকের মেয়েকে ‘কুপ্রস্তাব’ তৃণমূল কর্মীর, মারামারি-বোমাবাজিতে রণক্ষেত্র গাইঘাটা]

নির্দেশ পাওয়া মাত্রই তা কার্যকর করতে শুরু করে দিয়েছে জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব। সেইমতো আজ বিষ্ণুপুর পৌরসভার চেয়ারম্যান তথা ব্লক তৃণমূল সভাপতি শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়-সহ তিন নেতাকে শোকজ নোটিস পাঠানো হল। শনিবার বাঁকুড়া জেলা তৃণমূল সভাপতি শুভাশিস বটব্যাল সাংবাদিক সম্মেলন করে দলের এই সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেছেন। শুভাশিসবাবু বলেন, ”আমাদের তরফে সমস্ত রিপোর্ট পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে রাজ্য নেতৃত্বের কাছে।”

[আরও পড়ুন: জনতা না সরিয়েই হাতি তাড়াতে গুলি! ডুয়ার্সে জখম দাদু-নাতনি, বনদপ্তরের ভূমিকায় প্রশ্ন]

গত কয়েক মাস ধরেই এই জেলায় শাসকদলের একাধিক নেতা-নেত্রীর বিরুদ্ধে রেশন বন্টনে হস্তক্ষেপ ও স্বজনপোষণের অভিযোগ উঠেছিল। সেই সমস্ত অভিযোগের ভিত্তিতে দলের তরফে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা তৃণমূল সভাপতি শুভাশিস বটব্যাল। তাঁর বক্তব্য, দলনেত্রী এই পদক্ষেপের মাধ্যমেই দলীয় কর্মী ও সমর্থকদের কাছে স্বচ্ছতার বার্তা দিতে চাইছেন।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে