×

৬ চৈত্র  ১৪২৫  শুক্রবার ২২ মার্চ ২০১৯   |   শুভ দোলযাত্রা।

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নিউজলেটার

৬ চৈত্র  ১৪২৫  শুক্রবার ২২ মার্চ ২০১৯ 

BREAKING NEWS

বিক্রম রায়, কোচবিহার: থানায় ঢুকে এক যুবককে মারধরের ঘটনায় আলিপুরদুয়ারের জেলাশাসককে নিয়ে তোলপাড় গোটা রাজ্য৷ সেই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই আবারও সামনে এল ক্ষমতার অপব্যবহার করার অভিযোগ৷ এবার নাম জড়াল কোচবিহার এক নম্বর ব্লকের বিডিও গঙ্গা ছেত্রীর৷ জোর করে কীর্তন বন্ধ করে দেওয়ার অভিযোগ উঠল তাঁর বিরুদ্ধে৷ প্রতিবাদে কোচবিহার-দিনহাটা রোড অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয় বাসিন্দারা৷

[পারিবারিক অশান্তির জের, স্ত্রী ও শিশুকন্যার উপর অ্যাসিড হামলা ব্যক্তির]

প্রতি বছরই কোচবিহারের ধলুয়াবাড়িতে অষ্টপ্রহর কীর্তনের আয়োজন করা হয়৷ শুক্রবারও ওই এলাকায় কীর্তন চলছিল৷ রাত এগারোটা বেজে গেলেও, চলছিল কীর্তন৷ আচমকাই অনুষ্ঠান বন্ধ হয়ে যায়৷ কিন্তু কেন বন্ধ হয়ে গেল দীর্ঘদিন ধরে চলা কীর্তন? উদ্যোক্তাদের দাবি, রাত এগারোটা নাগাদ স্থানীয় বিডিও গঙ্গা ছেত্রী নির্দেশ দেন কীর্তন বন্ধ করার৷ বন্ধ না করা হলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ারও হুঁশিয়ারি দেন তিনি৷ তাই বাধ্য হয়েই বন্ধ করে দেওয়া হয় কীর্তন৷ দীর্ঘদিন ধরে চলা কীর্তন বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বিরক্ত হন স্থানীয়রা৷ ক্ষিপ্ত গ্রামবাসীরা রাতে প্রতিবাদ না করলেও, সকাল থেকে বিডিও-র নির্দেশিকার বিরোধিতায় পথে নামেন৷ শনিবার সকাল ১১টা নাগাদ কোচবিহার-দিনহাটা রোড অবরোধ করেন তাঁরা৷ প্রায় ঘণ্টাদুয়েক ধরে চলে বিক্ষোভ৷ অবরোধকারীদের অভিযোগ, বহু বছর ধরেই অষ্টপ্রহর কীর্তনের আয়োজন করা হয়৷ নির্দিষ্ট নিয়ম মেনেই রাতে মাইক বাজানো হয়৷ তা সত্ত্বেও কেবলমাত্র ক্ষমতার অপব্যবহার করেই বিডিও কীর্তন বন্ধ করে দিয়েছেন৷ বিডিও কেন এমন কাজ করলেন জবাব না দেওয়া পর্যন্ত অবরোধ চলবে বলেও হুঁশিয়ারি দেন স্থানীয়রা৷ দুপুর একটা পর্যন্ত অবরোধ চলে৷ তৈরি হয় ব্যাপক যানজট৷ খবর পেয়ে পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় বিশাল পুলিশবাহিনী৷ অবরোধকারীদের সঙ্গে পুলিশ কর্মীদের আলোচনার পর উঠে যায় অবরোধ৷ 

[হাইটেনশন তারে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু ২ হাতির, তদন্তে বনদপ্তর]

ধলুয়াবাড়ির বাসিন্দাদের দাবি মানতে নারাজ কোচবিহারের এক নম্বর ব্লকের বিডিও গঙ্গা ছেত্রী৷ তিনি বলেন, ‘‘আমি শুধু মাইক বন্ধ করতে বলেছিলাম৷ স্থানীয় বাসিন্দারা ভুল বোঝেন৷ তাই কীর্তন বন্ধ করে দেন তাঁরা৷’’ ধলুয়াবাড়ির বাসিন্দাদের কারও ভাবাবেগে আঘাত করতে চাননি বলেও দুঃখপ্রকাশ করেন বিডিও৷

ছবি: দেবাশিস বিশ্বাস

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং