BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শনিবার ২৮ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বিসর্জন দেখতে গিয়ে নৌকাডুবি, মালদহের বৈষ্ণবনগরে মৃত ৩ শিশু

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: October 9, 2019 8:59 am|    Updated: April 7, 2020 6:53 am

Bengal: 2 siblings among 3 kids dead in Malda boat tragedy

বাবুল হক, মালদা: দশমীর রাতে নৌকা করে দুর্গা প্রতিমা বিসর্জন দেখতে গিয়েছিল। কিন্তু, নৌকা উলটে গিয়ে মৃত্যু হল তিন শিশুর। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে মালদহের বৈষ্ণবনগরের কৃষ্ণপুর গ্রামে। মৃতদের নাম ধীরাজ মণ্ডল (১১), জুলি মণ্ডল(৬) ও প্রেমকুমার মণ্ডল(৪) বলে জানা গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: মনখারাপের মাঝেই দুই বাংলার প্রতিমা বিসর্জনে মানুষের ঢল ইছামতী নদীতে]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বৈষ্ণবনগরের ভবানী মণ্ডলপাড়ার কিছু বাসিন্দা একটি নৌকা করে মহেন্দ্রপুর এলাকায় দুর্গা প্রতিমার বিসর্জন দেখতে যাচ্ছিল। সাড়ে আটটা নাগাদ কৃষ্ণপুর ঘাট সংলগ্ন একটি ইটভাটার পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় আচমকা নৌকাটি উলটে যায়। এর ফলে তাতে থাকা যাত্রীরা সবাই জলে পড়ে যায়। তার মধ্যে কিছুজন সাঁতরে কৃষ্ণপুর ঘাটে উঠতে সক্ষম হলেও বাকিরা পারেনি। খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বৈষ্ণবনগর থানার পুলিশ। তারপর স্থানীয় বাসিন্দাদের সাহায্যে তিনটি শিশুর মৃতদেহ উদ্ধার করে। উদ্ধার কাজ খতিয়ে দেখার জন্য দুর্ঘটনাস্থলে গিয়ে পৌঁছান কালিয়াচক তিন নম্বর ব্লকের বিডিও। আরও অনেকে জলে পড়ে গিয়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। তাই মালদা থেকে ডুবুরি নিয়ে এসে তল্লাশিও চালানো হচ্ছে। ছোট একটি নৌকায় ১৫ জনের বেশি যাত্রী ওঠার জন্যই এই দুর্ঘটনা ঘটেছে।

এপ্রসঙ্গে বৈষ্ণবনগর থানার আইসি সঞ্জয় বিশ্বাস জানান, মঙ্গলবার রাত সাড়ে আটটা নাগাদ কৃষ্ণপুর গ্রামের কাছে এই দুর্ঘটনা ঘটে। এখনও পর্যন্ত নৌকাডুবির ফলে তলিয়ে যাওয়া তিনটি শিশুর দেহ উদ্ধার হয়েছে। বাকিদের খোঁজে তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

[আরও পড়ুন:ঘর থেকে সন্তান-সহ দম্পতির ক্ষতবিক্ষত দেহ উদ্ধার, খুনের কারণ নিয়ে ধন্দে পুলিশ]

নদিয়ার পলাশিপাড়াতেও প্রতিমা বিসর্জন দিতে গিয়ে জলঙ্গি নদীতে তলিয়ে যায় এক যুবক। মৃতের নাম শুভঙ্কর মণ্ডল(২৫)। বাড়ি পলাশিপাড়া বটতলা পাড়ায়। বৃষ্টিতে নদীতে জল বেশি ছিল ফলে আচমকা তিনি তলিয়ে যান। ডুবুরি নামালো হলেও তাঁকে উদ্ধার করা যায়নি।

গত বৃহস্পতিবার মালদহের চাঁচলেও ভয়াবহ নৌকাডুবি হয়। এর জেরে মৃত্যু হয় কমপক্ষে ১২ জনের। এখনও অনেকের খোঁজ পাওয়া যায়নি বলেই খবর। ওইদিন মহানন্দা নদীতে নৌকা প্রতিযোগিতা দেখতে গিয়েছিলেন প্রচুর মানুষ। সেসময় জগন্নাথপুর ঘাট থেকে একটি নৌকা অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে বিহারের আবাদপুর হয়ে উত্তর দিনাজপুরের মুকুন্দপুর ঘাটে যাচ্ছিল। আচমকা মাঝ গঙ্গায় ডুবে যায় নৌকাটি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে