BREAKING NEWS

২৯ চৈত্র  ১৪২৭  সোমবার ১২ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

Bengal Polls: 'দিদি, গণতন্ত্র খেলা নয়, মানুষের সেবার পথ', তারকেশ্বর থেকে তীব্র কটাক্ষ মোদির

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: April 3, 2021 3:40 pm|    Updated: April 3, 2021 4:25 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তারকেশ্বরের জনসভা থেকে ফের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)  তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তাঁর দেওয়া ‘খেলা হবে’ স্লোগানকে কটাক্ষ করলেন। মোদির সাফ কথা, “দিদি নির্বাচন কোনও খেলা নয়, গণতন্ত্র খেলা নয়, গণতন্ত্র মানুষের সেবার পথ, উন্নয়নের পথ। এসব ভুলে বঙ্গবাসীর সঙ্গে আপনারা বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন। আর বাংলার মানুষ এই বিশ্বাসঘাতকতার জবাব দেবে।”  

প্রধানমন্ত্রীর দাবি, প্রথম দুদফার নির্বাচনেই স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে, তৃণমূলের খেলা শেষ। প্রথম  দু’দফাতেই স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে বাংলায় বড়সড় সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে বিজেপি (BJP)। মোদির কটাক্ষ, “খেলার মাঠে কেউ বারবার আম্পায়ারকে গালি দেওয়ার মানে, তাঁর  খেলায় খুঁত আছে। তেমনই ভোটে যদি কেউ বারবার কমিশনকে তোপ দাগে, তাহলে বুঝতে হবে তাঁর খেলা শেষ। দিদি কখনও ইভিএমকে (EVM), কখনও কমিশনকে তোপ দাগছেন। আগামী ২ মে কী হতে চলেছে, তাঁর ইঙ্গিত আমরা দুদিন আগে নন্দীগ্রামে দেখতে পেয়েছি।” 

[আরও পড়ুন: ‘যোগী আদিত্যনাথের কাছে হিন্দুত্ব শিখব না’, বিজেপির তারকা প্রচারককে জোরাল কটাক্ষ অভিষেকের]

বিজেপির বিরুদ্ধে তৃণমূলের প্রচারের অন্যতম অস্ত্র বাঙালি স্বাভিমান। সেই স্বাভিমানে খোঁচা দিয়ে এদিন মোদি দাবি করেছন, “দিদি এখন বাংলার মানুষকে অপমান করছেন। দিদি বলছেন, বিজেপির সভায় যে ভিড় জমেছে, সেটা টাকার জন্য। আপনারাই বলুন আপনারা এখানে টাকার জন্য এসেছেন? বাংলার মানুষ বিক্রি হয় নাকি? বাংলার মানুষ অভিমানী, দিদি টাকা নেওয়ার কথা বলে আপনি বিজেপি, বা মোদিকে অপমান না করে, বাংলার মানুষকে অপমান করেছেন। দিদি (Mamata Banerjee) এভাবে বাংলার মানুষকে অপমান করবেন না। এঁরাই আপনাকে মসনদে বসিয়েছেন, আর আপনি এদের গালি দিচ্ছেন।”

[আরও পড়ুন: ‘মোদি দশ লাখি সুটই পরেন না, মানুষকেও ১৫ লক্ষ টাকার টুপি পরান’, খোঁচা তৃণমূল প্রার্থী লাভলির]

মোদির অভিযোগ,  স্রেফ নিজের অহঙ্কারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী কেন্দ্রের সব কাজে বাধা দেন। উদাহরণ হিসেবে কিষাণ সম্মান নিধি, আয়ুষ্মান ভারত যোজনার প্রসঙ্গ তোলেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা করেছেন, “বাংলার নতুন মুখ্যমন্ত্রীর শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে আমি অবশ্যই আসব। এসে বলব, ‘ভাই তাড়াতাড়ি কিষাণ সম্মান নিধি চালু করুন। যাতে আমি দিল্লি থেকে দ্রুত টাকা পাঠাতে পারি। যাতে দুর্গাপূজার আগে কৃষকদের অ্যাকাউন্টে টাকা চলে যায়। “

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement