১ কার্তিক  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৯ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

প্লাস্টিক ক্যারিব্যাগ রুখতে এবার আড়তে হানা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: November 7, 2016 10:09 am|    Updated: November 7, 2016 10:09 am

Bidhannagar Municipal Corporation will raid at Storehouses for illegal plastics

কলহার মুখোপাধ্যায়: বেআইনি প্লাস্টিক ক্যারিব্যাগের উৎসসন্ধানে মজুতদারদের আড়তে হানা দিতেই প্রবল বাধা৷ প্লাস্টিক মজুতদারদের হুমকির মুখেও পড়তে হল পুরকর্মীদের৷

গত দু’মাস জুড়ে লাগাতার জরিমানা সত্ত্বেও বেআইনি প্লাস্টিক ক্যারিব্যাগ ব্যবহারে কোনও ভাটা পড়েনি৷ বাস্তবের এই ছবিটাই কপালে ভাঁজ ফেলে দিয়েছে বিধাননগর পুরনিগম কর্তৃপক্ষের৷ তাই এবার আর শুধু দোকানদাররা নন ক্যারিব্যাগের বাড়বাড়ন্তের মূল খুঁজতে পৌঁছে যাওয়া হয়েছিল মজুতদারদের আড়তে৷ সেখানে গিয়ে চক্ষু চড়কগাছ পুরকর্তাদের৷ এক একটি গোডাউনে প্রায় ৫০০ থেকে ৭০০ কেজি পর্যন্ত বেআইনি ক্যারিব্যাগ মজুত করেছে আড়তদার৷ এরকম ৫টি আড়তে ইতিমধ্যেই অভিযান চালিয়েছেন নিগম আধিকারিকরা৷ তবে প্রবল প্রতিরোধের মুখে পড়ে প্রথম অবস্থায় পিছিয়ে আসতে হল তাঁদের৷ মজুতদাররা সাফ বলে দিয়েছে, ‘আগে গিয়ে প্লাস্টিক তৈরির বেআইনি কারখানাগুলো বন্ধ করুন৷ তারপর আমাদের কাছে আসবেন৷’

প্রাথমিক চোটে পিছিয়ে এলেও বেআইনি প্লাস্টিক বন্ধের অভিযান আরও তীব্র করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নিগম কর্তৃপক্ষ৷ বেআইনি ক্যারিব্যাগ মজুতকারীদের চিঠি ধরানো হবে আগামী বুধবার৷ ৫ দিনের মধ্যে বেআইনি ক্যারিব্যাগ হঠিয়ে দিতে নির্দেশ দেওয়া হবে তাঁদের৷ না হলে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে৷ পুরসভা সূত্রে জানা যাচ্ছে, নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে বেআইনি প্লাস্টিক ক্যারিব্যাগ না সরালে সংশ্লিষ্ট মজুতকারীর ট্রেড লাইসেন্স নবীকরণ করা হবে না৷ আর প্রাথমিক বাধা থেকে শিক্ষা নিয়ে নিষিদ্ধ প্লাস্টিক বন্ধে অভিযান চালাতে মোট ১২ জনের টাস্ক ফোর্স তৈরি করেছে নিগম৷ সেই ফোর্স পুরনিগমের সবকটি বাজারে ঝটিকা অভিযান চালাবে নিয়মিত৷

পুজোর পর পর ১৭ জন দোকানদারকে বেআইনি প্লাস্টিক ক্যারিব্যাগে পুরে মাল দেওয়ার অভিযোগে ৫০০ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে৷ এই অভিযান শুরু হয়েছিল সেপ্টেম্বর মাস থেকে৷ ইতিমধ্যেই জরিমানার সংখ্যা প্রায় পঞ্চাশ ছাড়িয়েছে বলে জানা যাচ্ছে নিগম সূত্রে৷

বিধাননগর পুরনিগমের মেয়র পরিষদ সদস্য (পরিবার ও সমাজকল্যাণ) রহিমা বিবি মণ্ডল জানিয়েছেন, চলতি সপ্তাহে কৈখালি, বাগুইআটি, দত্তাবাদ-সহ আরও বেশ কয়েকটি বাজারে অভিযান চালাবে এই বিশেষ ফোর্স৷ তবে আগে থেকে কোনও ঘোষণা ছাড়াই মার্কেটে ঝটিকা অভিযান চালানো হবে৷ পরিবেশ বিভাগের কর্মীরা বলছেন, একদিনের ঝটিকা সফরেই ১৭ দোকানদারকে জরিমানা করা হয়েছে৷ প্রতিদিন অভিযান হলে অনেকটা রাশ টানা যাবে৷

যে দোকানে প্রথমবার বেআইনি প্লাস্টিক মিলবে প্রাথমিকভাবে তাঁদের সতর্ক করা হবে৷ বাজেয়াপ্ত করে নেওয়া হবে বেআইনি প্লাস্টিকের প্যাকেটগুলি৷ যেরকমটা বৈশাখী ও নারায়ণপুর বাজারের ক্ষেত্রে করা হয়েছে৷ এরপরও ওই দোকানদারকে যদি ফের বেআইনি প্লাস্টিকে মাল বিক্রি করতে দেখা যায় তাহলে হাতে হাতে ৫০০ টাকা জরিমানা করা হবে তাঁদের৷ তারপরও যদি বেআইনি প্লাস্টিক ক্যারিব্যাগ ব্যবহার করতে দেখা যায় ওই দোকানদারকে তাহলে তার ট্রেড লাইসেন্স আর নবীকরণ করা হবে না৷ মেয়র পারিষদ জানাচ্ছেন,  মাইক্রনের পরিমাপ করতে মেশিন কেনার পরিকল্পনা রয়েছে পুরসভার৷ বেআইনি এই প্রবণতা রুখতে সামাজিক সচেতনতার দিকেও জোর দিতে প্রচার অভিযান নিয়মিত চলবে বলে জানান তিনি৷ ক্রেতাদেরও সচেতন হতে অনুরোধ জানান৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement