Advertisement
Advertisement

জেলা পরিষদে বিরোধীশূন্য বোর্ড গঠন, বীরভূমে নজির শাসকদলের

রাত পোহালেই জেলাপরিষদের বোর্ড গঠন।

Birbhum: TMC will form board in  Zila parishad unopposed

ছবিতে বীরভূম জেলাপরিষদ ভবন, ছবি: বাসুদেব ঘোষ।

Published by: Shammi Ara Huda
  • Posted:September 27, 2018 6:44 pm
  • Updated:September 27, 2018 6:44 pm

নন্দন দত্ত, সিউড়ি: বীরভূমে এই প্রথম বিরোধীশূন্য বোর্ড গঠন করতে চলেছে তৃণমূল। রাত পোহালেই বোর্ড গঠনের প্রক্রিয়া শুরু হয়ে যাবে। ৪২ সদস্যের জেলা পরিষদের ইতিহাসে এমন ঘটনা আগে ঘটেনি। বোর্ড গঠন সম্পন্ন হলেই গোটা জেলা পরিষদ তৃণমূলের অধীনে চলে আসবে। নিষ্কণ্টক জেলাপরিষদ পরিচালনা বীরভূমের রাজনৈতিক ইতিহাসে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।  

গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে বীরভূম  জেলা পরিষদে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায় তৃণমূল কংগ্রেস। মনোনয়ন পর্বে রাজনগর আসনে বিজেপির এক প্রার্থী  মনোনয়ন জমা দিতে পেরেছিলেন। বাকি ৪১ আসনে মনোনয়নই জমা পড়েনি। তাই নির্বাচনও হয়নি। যদিও পরে বিজেপির ওই প্রার্থী মনোনয়ন প্রত্যাহার করে তৃণমূলে যোগ দেন। তখনই নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল  যে, জেলাপরিষদের ব্যাটন শাসকদলের হাতেই থাকছে।  দু’দিন আগেই জেলা পরিষদের আগামী সভাধিপতির নামও ঘোষণা করে দিয়েছে তৃণমূল। জেলা সভাধিপতির আসনে বসতে চলেছেন বিকাশ রায়চৌধুরি। সহ-সভাধিপতি নন্দেশ্বর মণ্ডল। তবে কর্মাধ্যক্ষদের নাম ঘোষণা হবে পুজোর পরে।

Advertisement

[মদকাণ্ডের জেরে তুফানগঞ্জ আইটিআইয়ের অধ্যক্ষকে শোকজ]

শুক্রবার পরিষদের সদস্য হিসেবে শপথ নেবেন ৪২ জন জনপ্রতিনিধি। শপথ শেষে সভাধিপতির  পদে আনুষ্ঠানিকভাবে তৃণমূলের বিকাশ রায়চৌধুরির নাম প্রস্তাব করবেন নব নির্বাচিত জেলা পরিষদ সদস্য বিপ্লব ওঝা। তাঁকে সমর্থন করবেন বিশ্ববিজয় মাড্ডি। একইভাবে সহ-সভাধিপতির নাম প্রস্তাব করবেন করিম খান। শপথ শেষে পরিষদ লাগোয়া জেলা স্কুলের মাঠে একটি জনসভা হবে। সেখানে দলের তরফে জেলার পর্যবেক্ষক তথা পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম উপস্থিত থাকবেন। এছাড়াও জেলার দুই বিধায়ক মন্ত্রী আশিস বন্দ্যোপাধ্যায় ও চন্দ্রনাথ সিংহ উপস্থিত থাকবেন। অনুষ্ঠানে থাকার কথা দলের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল-সহ অন্যান্য বিধায়কদেরও।  গত পাঁচ বছর জেলাপরিষদ পরিচালনায় স্ব-মূল্যায়নের ভিত্তিতে সেরা শিরোপা পেয়েছে বীরভূম। ‘বীরভূম জেলাপরিষদের অধীনে কেন্দ্রীয় প্রকল্পের টাকা যথাযথ খরচ হয়েছে। জনস্বার্থে নানা প্রকল্প যথা সময়ে সমাপ্ত করায় রেকর্ড গড়েছে বীরভূম জেলাপরিষদ।

Advertisement

বীরভূম জেলা পরিষদের ভাবী সভাধিপতি বিকাশ রায়চৌধুরি জানিয়েছেন,  ‘সোনার বীরভূম গড়ার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই নির্দেশ যাতে অক্ষরে অক্ষরে পালন হয়, তা দেখেছেন শাসকদলের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। ফলে একসময় উন্নয়নের নিরিখে তালিকায় সবচেয়ে নিচের দিকে থাকা বীরভূম জেলাপরিষদই এখন রাজ্যের সেরা। আগামী পাঁচ বছর একইভাবে সকলের ভালোবাসা ও আশীর্বাদ নিয়ে ফের রাজ্যের সেরার তালিকায় জেলাকে পৌঁছে দিতে পারব, আশা করছি।’

[প্রাক্তন পঞ্চায়েত প্রধানের ভাইকে লক্ষ্য করে গুলি, চাঞ্চল্য চোপড়ায়]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ