BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

পুরভোট না করিয়ে প্রশাসক বসানো ‘অসাংবিধানিক’, অভিযোগে আন্দোলনে গেরুয়া শিবির

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: June 3, 2019 9:48 pm|    Updated: June 3, 2019 9:48 pm

An Images

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: রাজ্যে একাধিক পুরসভার মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছে। সেখানে ভোট না করে প্রশাসক বসিয়েছে রাজ্য সরকার। এটাকে ‘অসাংবিধানিক’ বলে মনে করছে বিজেপি। একাধিক পুরসভায় প্রশাসক বসানোর প্রতিবাদে আন্দোলনে নামতে চলেছে গেরুয়া শিবির। পাশাপাশি রাজ্য সরকারের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আইনের পথেও তারা যাচ্ছে। সোমবার একথা জানিয়েছেন রাজ্য বিজেপির সহ-সভাপতি জয়প্রকাশ মজুমদার। এই বিষয়টি নিয়ে রাজ্য নির্বাচন কমিশনার সৌরভ দাসের সঙ্গেও দেখা করবে বিজেপি নেতৃত্ব।

[আরও পড়ুন : অসন্তোষের আঁচে তপ্ত মণিরুল, বিজেপি নেতৃত্বকে পাঠালেন ইস্তফাপত্র]

জয়প্রকাশ মজুমদারের বক্তব্য, হেরে যাওয়ার ভয়ে পুরসভার ভোট করতে পিছিয়ে যাচ্ছে তৃণমূল। পুরমন্ত্রীর উদ্দেশে তাঁর সতর্কবার্তা, ” ভারত সরকার চাইলে বিধানসভার ভোট পিছিয়ে রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করতে পারে। এটা করলে আপনারা আপত্তি করবেন না তো?”

এদিকে, ৫ জুন, বিশ্ব পরিবেশ দিবসকে সামনে রেখে রাজ্যজুড়ে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিতে নামছে বিজেপি। বিজেপির কৃষক সংগঠন কিষান মোর্চা সিঙ্গুর থেকে এই কর্মসূচি শুরু করবে। কিষান মোর্চার রাজ্য সভাপতি রামকৃষ্ণ পাল জানালেন, সিঙ্গুরে বড় করে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি হবে। সিঙ্গুরে কৃষি-শিল্প হয়নি। সেখানকার মানুষ শিল্প চায়। গণ কনভেনশন করে রাজ্য সরকার সেখানকার মানুষের রায় নিয়ে জানুক, তারা কী চায়। গাছ পুঁতে বন্ধ্যা সিঙ্গুরকে উর্বর করে তোলা হবে, এমনই বক্তব্য রামকৃষ্ণ পালের।

[আরও পড়ুন : ভোট পরবর্তী হিংসা রাজ্যজুড়ে, মুর্শিদাবাদে গুলিবিদ্ধ পঞ্চায়েত প্রধানের স্বামী]

একসময় পরিবর্তনের বাংলায় সিঙ্গুরের আন্দোলন বড় ভূমিকা নিয়েছিল। সেই সিঙ্গুরও এবার বিজেপির হাতিয়ার। লোকসভা নির্বাচনে হুগলি থেকে জয়ী হওয়া সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় সিঙ্গুরে টাটাদের ফিরিয়ে আনার কথা বলেছেন। সেখানে শিল্পের দাবি তুলেছেন। এবার বিজেপির কৃষক সংগঠনও দলের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির কেন্দ্রে রাখছে সেই আন্দোলনের সিঙ্গুরকে। গোটা রাজ্যজুড়ে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে মূলত জনসংযোগ ও গ্রামেগঞ্জে কৃষক সমাজের আরও কাছে পৌঁছানোই বিজেপির লক্ষ্য বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। একইসঙ্গে পরিবেশ দিবসে প্লাস্টিক মুক্ত শহর গড়ারও ডাক দিয়েছে কিষান মোর্চা। ওইদিন কলেজ স্ট্রিট, সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউ থেকে প্লাস্টিক কুড়িয়ে রাস্তা পরিষ্কার করবেন বিজেপি কর্মীরা।সাহায্য করবেন শহরকে দূষণমুক্ত রাখতে৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement