৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সভার আগের দিন ছিন্নভিন্ন অভিষেকের পোস্টার, অভিযোগের আঙুল বিজেপির দিকে

Published by: Bishakha Pal |    Posted: August 6, 2018 7:46 pm|    Updated: September 10, 2020 11:38 am

An Images

ছবি- রাজা দাস

রাজা দাস, বালুরঘাট: লোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে আগামিকাল মঙ্গলবার অভিষেক বন্দোপাধ্যায়ের জনসভা রয়েছে বালুরঘাটে। তবে তার আগেই সোমবার সাংসদ তথা তৃণমূলের সর্বভারতীয় যুব সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ফেস্টুন ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগ উঠল বিরোধীদের বিরুদ্ধে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বালুরঘাট শহরে রাজনৈতিক চাপানউতোর শুরু হয়।  রাজনৈতিকভাবে পিছিয়ে থাকার রোষে বিরোধীরা এই নোংরামো করছে বলেই অভিযোগ তৃণমূল জেলা সভাপতি বিপ্লব মিত্রর।  বিষয়টি নিয়ে বালুরঘাট থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। তবে তৃণমূলের এই অভিযোগকে মিথ্যা বলে উড়িয়ে দিয়েছেন দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা বিজেপি সাধারণ সম্পাদক বাপি সরকার। নিজেদের গোষ্ঠী কোন্দলের জেরে পোষ্টার ছেঁড়া হয়েছে বলে পালটা অভিযোগ তাঁর।

রোগী মৃত্যুতে গাফিলতির অভিযোগ, চিকিৎসককে বেধড়ক মারধর পরিজনদের ]

জানা গিয়েছে, দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা তৃণমূলের ডাকে বালুরঘাটের জনসভায় মঙ্গলবার হাজির থাকছেন রাজ্য সাধারণ সম্পাদক  সুব্রত বক্সি, যুব সভাপতি তথা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়,  রাজ্য নেতা ফিরহাদ হাকিম, জেলা সভাপতি বিপ্লব মিত্র, সাংসদ তথা নেত্রী অর্পিতা ঘোষ-সহ অন্যরা। বালুরঘাট শহরের হাইস্কুল মাঠের ( দিশারী এলাকা) সেই জনসভায় দেড় লক্ষাধিক মানুষের সমাগম করার টার্গেট রয়েছে। এলাকায় রয়েছে  পুলিশের কড়া নিরপত্তা। দুই দিন আগে থেকেই জেলা পুলিশের আধিকারিকরা সেখানে আস্তানা গেড়েছেন। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রাণনাশের আশঙ্কার অভিযোগ জমা পড়তেই নিরাপত্তা তিনগুণ বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে বলে খবর। 

রাতভর মুষলধারায় বৃষ্টি বাঁকুড়ায়, ভেঙে পড়ল আস্ত একটি বাড়ি ]

তৃণমূল জেলা সভাপতি বিপ্লব মিত্র জানান, বিজেপি সাম্প্রদায়িক উস্কানি দিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে। তারা বাংলা তথা মুখ্যমন্ত্রীর নামে কুৎসা ও অপপ্রচার করছে। এর পিছনে  আরএসপি ও সিপিএমের মত দলগুলি রয়েছে বলেও অভিযোগ তুলেছেন তিনি। এও জানিয়েছেন, ঘটনাটি নিয়ে পুলিশের কাছে অভিযোগ করা হয়েছে ইতিমধ্যেই। পাশাপাশি, বিরাট জমায়েতকে সামাল দিতে পুলিশের পাশাপাশি আগামিকাল দলীয় স্বেচ্ছাসেবকরা থাকবেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement