২১ ফাল্গুন  ১৪২৭  রবিবার ৭ মার্চ ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘আমফান দুর্নীতিতে জড়িতদের বিজেপিতে ঠাঁই হবে না’, হুঙ্কার শুভেন্দুর

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: February 17, 2021 1:17 pm|    Updated: February 17, 2021 1:35 pm

An Images

রঞ্জন মহাপাত্র, কাঁথি: পিছাবনির সভা থেকে ফের রাজ্য ও তৃণমূল নেতাদের তোপ দাগলেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। সাফ জানিয়ে দিলেন, আমফানের টাকা যারা চুরি করছে, তাদের বিজেপিতে নেওয়া হবে না। সুর চড়িয়ে বললেন, বাংলায় প্রকৃত পরিবর্তন হবেই।

বুধবার পিছাবনীতে সভা করেন শুভেন্দু অধিকারী। একাধিক ইস্যুতে রাজ্যের বিরুদ্ধে সুর চড়ান তিনি। আমফানের (Amphan) ত্রাণ থেকে রেশন, সমস্ত বিষয়েই সরকারের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তোলেন তিনি। দাবি করেন, তাঁর এলাকার তৃণমূল কর্মীরা বিজেপির কর্মী-সমর্থকদের ভয় দেখাচ্ছেন। বলেন, “পাঁচ পয়সার লিডার, যাদের হাতেখড়ি দিয়েছিলাম। কেউ বিজেপির (BJP) কর্মসূচিতে গেলে আজ তারা হুমকি দিচ্ছে প্রকল্পের টাকা আটকে দেওয়া হবে। এসব বরদাস্ত করা হবে না।” এরপরই আমজনতার উদ্দেশে শুভেন্দু বলেন, “কেউ ভয় পাবেন না, প্রধানমন্ত্রীর প্রকল্পের টাকা কেউ আটকাতে পারবে না।” তৃণমূল নেতাদের লাগাতার দলবদল প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “আমফানের ত্রাণ যারা চুরি করছে, তাদের কোনওভাবেই বিজেপিতে নেওয়া হবে না।” পাশাপাশি, বিজেপি বাংলার দায়িত্ব পেলে মানুষের দুঃখ, দুর্দশা ঘুচবে বলেও আশ্বাস দেন তিনি।

[আরও পড়ুন: বিজেপি করার ‘অপরাধে’ দলীয় কর্মীর সুতোর গোডাউনে আগুন, অভিযোগের তির তৃণমূলের দিকে]

এদিনের সভা শেষে পিছাবনী থেকে শুরু হয় বিজেপির পরিবর্তন যাত্রা। শেষ হবে কাঁথিতে। উল্লেখ্য, একুশের নির্বাচন যতই এগিয়ে আসছে ততই দলবদলের হিড়িক পড়ছে তৃণমূলে। দলত্যাগের পরই তৃণমূলের তরফে দলের প্রাক্তন নেতাদের বিরুদ্ধে নানারকম দুর্নীতির অভিযোগ তোলা হচ্ছে। বলা হচ্ছে, দুর্নীতি ঢাকতেই বিজেপিতে গিয়েছেন নেতারা। পালটা বিজেপি প্রশ্ন তুলছে, কেন দলত্যাগের পরই নেতাদের উপর দুর্নীতির অভিযোগ তোলা হচ্ছে। এসবের মাঝে তৃণমূল নেতাদের বিজেপি যোগ প্রসঙ্গে শুভেন্দুর মন্তব্য যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে। 

[আরও পড়ুন: এবার কি ভোটের ময়দানে সাধনকন্যা শ্রেয়া? ব্যানার-পোস্টার-ফ্লেক্সে ছয়লাপ বসিরহাট]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement