BREAKING NEWS

১৭  মাঘ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

জুহির সঙ্গে যোগসাজশের অভিযোগে মহিলা সাংসদকে তলব সিআইডির

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: March 3, 2017 11:19 am|    Updated: March 3, 2017 11:19 am

BJP legislator likely to be summoned by CID in connection with child trafficking probe

স্টাফ রিপোর্টার, শিলিগুড়ি: শিশু পাচার-কাণ্ডে জুহি-চন্দনাকে মদত দেওয়ার অভিযোগে এবার এক মহিলা সাংসদকে তলব করল সিআইডি৷ ওই সাংসদকে নোটিস পাঠানোর তোড়জোড় শুরু হয়ে গিয়েছে৷ দু-একদিনের মধ্যেই তাঁর হাতে নোটিস পৌঁছে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন সিআইডির স্পেশাল সুপার (নর্থ) অজয় প্রসাদ৷ শুক্রবার বেলায় ওই সাংসদকে সিআইডির তরফে টেলিফোন করা হয়েছে বলেও গোয়েন্দারা জানিয়েছেন৷ তবে, তাঁকে কলকাতার ভবানীভবন না শিলিগুড়ির পিনটেল ভিলেজ, কোথায় ডাকা হবে তা স্পষ্ট করেননি গোয়েন্দারা৷

(বেসরকারি হাসপাতালের অনিয়ম রুখতে এবার বিল আনছে রাজ্য)

ঘটনায় ধৃত হোমকর্ত্রী চন্দনা চক্রবর্তী ও বিজেপি নেত্রী জুহি চৌধুরিকে জেরা করে ওই সাংসদের নাম উঠে এসেছে বলে দাবি সিআইডি-র৷ গোয়েন্দারা জানতে পেরেছেন, জুহিকে নেপালে গা ঢাকা দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন ওই সাংসদ৷ এমনকী মোটা টাকা কমিশনের লোভে ওই সাংসদের প্রভাব খাটিয়েই চন্দনার হোমের জন্য নর্থ ব্লকে তদ্বির করতে যান জুহি৷ চন্দনার সঙ্গে ফিফটি ফিফটি চুক্তিতে নতুন চারটি হোম খোলার পরিকল্পনা করতে জুহি ওই সাংসদের সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন৷ বঙ্গভবনেও ওই সাংসদের সঙ্গে জুহির বৈঠক হয় বলে স্বীকার করে নিয়েছেন চন্দনা৷ সেন্ট্রাল অ্যাডপশন রিসোর্স অথরিটি (কারা)-র সঙ্গে বৈঠকেও ওই সাংসদ প্রভাব খাটিয়েছিলেন বলে সিআইডি সূত্রে খবর৷ কিন্তু বারবার কেন এত বৈঠক, শিশু পাচার কাণ্ডের কথা জেনেই কি ওই সাংসদ প্রভাব খাটানোর চেষ্টা করেছিলেন–সেই প্রশ্নেরই এখন উত্তর খুঁজছেন সিআইডি কর্তারা৷ এদিকে শিশুপাচার কাণ্ডে মহিলা মোর্চার নেত্রী জুহি চৌধুরির জড়িয়ে পড়া এবং দলের নাম উঠে আসায় পাল্টা তোপ দাগতে চলেছে রাজ্য বিজেপি৷ এদিন বিকেলে বিজেপির তরফে পরবর্তী পদক্ষেপ ঘোষণা করতে পারেন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ৷ অন্যদিকে, দলের শীর্ষনেতৃত্বের ডাকে দিল্লি গিয়েছেন মহিলা মোর্চার সভানেত্রী রাজ্যসভার সাংসদ রূপা গঙ্গোপাধ্যায়৷

(পাকদণ্ডী বেয়ে আঁধার থেকে আলোয় ফিরল এই মেয়ে)

জুহির সঙ্গে ‘প্রভাবশালী’ এক নেত্রীর টেলিফোনে কথোপকথনের রেকর্ড হাতে এসেছে সিআইডি-র৷ ওই রেকর্ডে দেখা যাচ্ছে, ‘দিদি’ বলে তাঁকে সম্বোধন করছেন জুহি৷ বলা হচ্ছে, ‘দিল্লিতে গেলে বৈঠক হবে৷ আমাদের বিষয়টি দেখে নেবেন৷’ যদিও জুহি ফোনে কাকে দিদি বলে সম্বোধন করেছিলেন, সিআইডি এখনই তা জানাতে নারাজ৷ তবে তিনি জুহির ঘনিষ্ট বলে বলে খবর৷

ঘটনায় বেপাত্তা থাকা জুহির বাবা রবীন্দ্রনারায়ণ চৌধুরিকেও গ্রেপ্তার করতে তল্লাশি চালাচ্ছে সিআইডি৷ বেশ কয়েকজন ‘প্রভাবশালী’-র সঙ্গে জুহিকে তিনি পরিচয় করিয়ে দিয়েছিলেন বলে জানতে পেরেছেন রাজ্য গোয়েন্দা পুলিশের কর্তারা৷ ফলে তাঁকে জেরা করে হোম ও এই শিশু পাচার-কাণ্ডে প্রভাবশালী যোগ নিয়ে আরও তথ্য মিলবে বলেই মনে করছে সিআইডি৷ এদিনই চন্দনার ১৩ দিনের সিআইডি হেফাজত শেষ হচ্ছে৷ তাই বেলায় পিনটেল ভিলেজে নিয়ে এসে জুহি-চন্দনাকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করা হয়৷ গোয়েন্দারা জানিয়েছেন, জুহি-চন্দনার বয়ানে সামঞ্জস্য মিলেছে৷ জেরায় চন্দনা যে নেতা-নেত্রীদের কথা বলেছেন, জুহিও তাঁদের নাম নিয়েছেন৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে