BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সাম্প্রদায়িক উসকানি দিয়ে ‘বিভ্রান্তিকর’ টুইট অর্জুন সিংয়ের, পদক্ষেপের হুঁশিয়ারি পুলিশের

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: September 2, 2020 6:12 pm|    Updated: September 2, 2020 6:34 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিজেপি সাংসদের অর্জুন সিংয়ের (Arjun Singh) ধর্মীয় উসকানি মূলক টুইটকে কেন্দ্র করে এবার উত্তাল রাজ্য রাজনীতি। অর্জুন সিংয়ের টুইটের ছবি পোস্ট করে পুলিশ জানিয়েছে, “এই পোস্ট বা দাবি বিভ্রান্তিকর।” পাশাপাশি, যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাসও দেওয়া হয়েছে।

১ সেপ্টেম্বর, মঙ্গলবার সকালে কালীপ্রতিমা পুড়িয়ে দেওয়ার কিছু ছবি দিয়ে একটি টুইট করেন সাংসদ অর্জুন সিং। লেখেন, “দিদির জিহাদি রাজনীতি এখন হিন্দু ধর্ম ও সংস্কৃতিকে ধ্বংস করার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। দেখুন মুর্শিদাবাদে কীভাবে মন্দিরের ওপর হামলা চালিয়ে কালীপ্রতিমা পুড়িয়ে দিয়েছে বিশেষ একটি ধর্মীয় সম্প্রদায়ের মানুষ।”

টুইটটি ছড়িয়ে পড়তেই শুরু হয় বিতর্ক। এরপরই বিজেপি সাংসদের টুইটের ছবি দিয়ে একটি টুইট করে রাজ্যপুলিশ। সেখানে বলা হয়, “এই পোস্ট বা দাবি বিভ্রান্তিকর। এর বিরুদ্ধে যথোপযুক্ত আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। বিভ্রান্তিকর এবং উস্কানিমূলক এই পোস্ট এড়িয়ে চলুন।”

[আরও পড়ুন: কৃষককে ফাঁদে ফেলে জামতাড়া গ্যাং হাতিয়েছিল লক্ষাধিক টাকা, ফিরিয়ে দিল বীরভূম সাইবার ক্রাইম]

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল একটি চিঠি মারফত জানা গিয়েছে যে, সাংসদের টুইটের ওই কালীপ্রতিমাটি মুর্শিদাবাদের নওদার। ৩১ আগস্ট রাতে ওই প্রতিমায় আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। তবে কোনও সামগ্রী খোওয়া যায়নি। এপ্রসঙ্গে মন্দির কমিটি বলেন, ওই এলাকায় হিন্দু-সম্প্রদায়ের মধ্যে কোনও দ্বন্দ্ব নেই। তাই এই ঘটনাকে সাম্প্রদায়িক রূপ দেওয়ার কোনও কারণ বা যুক্তি নেই।

[আরও পড়ুন:লোকসভা নির্বাচনে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ, মার্ক জুকারবার্গকে চিঠি ডেরেকের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement