BREAKING NEWS

৭ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২১ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

আসানসোলে তৃণমূলের হয়ে লড়বেন বিজেপি সাংসদ শত্রুঘ্ন সিনহা?

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 23, 2018 7:32 pm|    Updated: May 23, 2018 9:37 pm

bjp mp shatrughan sinha will contest at asansol on trinamool ticket

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, দুর্গাপুর: আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে আসানসোল থেকে তৃণমূলের টিকিটে ভোটে লড়বেন বিজেপির বর্তমান সাংসদ শত্রুঘ্ন সিনহা! শুধু আসানসোল দুর্গাপুরেই নয়, সোশ্যাল মিডিয়ার সৌজন্যে এই খবর রীতিমতো বিতর্কের সৃষ্টি করেছে শিল্পাঞ্চলে৷ বিতর্ক আরও উসকে দিয়েছেন আসানসোলের সাংসদ ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় নিজেই৷ ফেসবুকে মন্ত্রী বাবুলের পোস্ট ঘিরে শুরু হয়েছে বিতর্ক৷

আসানসোল সংসদ এলাকায় হিন্দিভাষীদের মন জয় করতেই তৃণমূলের এই সিদ্ধান্ত বলে ইতিমধ্যেই শিল্পাঞ্চলে প্রচার শুরু করে দিয়েছে বিজেপি৷ কাঁটা দিয়ে কাঁটা তোলার এই কৌশল নিয়ে মুখে কুলুপ শাসকদলের৷ দীর্ঘদিন ধরেই ‘শটগান’ সিনহা বিজেপির অন্দরে অত্যন্ত বিতর্কিত সংসদ বলেই পরিচিত৷ কেন্দ্রের বা বিজেপি প্রথম শ্রেণির নেতাদের সমালোচনা করে দলেই ‘কুখ্যাত’ শত্রুঘ্ন সিনহা৷ একসময়ের দাপুটে এই অভিনেতা হিন্দিভাষীদের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয়৷ সেই জনপ্রিয়তাকেই ব্যবহার করতে চাইছে তৃণমূল কংগ্রেস বলে দাবি৷ মঙ্গলবার আসানসোলের বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় তাঁর ফেসবুকে এই বিতর্ক নিয়েই পোস্ট করেন বলে জানা গিয়েছে৷

[স্বামীর দ্বিতীয়পক্ষের শিশুসন্তানকে চুরির চেষ্টা, ল্যাম্পপোস্টে বেঁধে মহিলাকে গণপ্রহার]

যদিও, শাসকদল এই বিতর্ককে অমূলক বলে দাবি করেছে৷ তৃণমূলের পশ্চিম বর্ধমান জেলার সভাপতি ভি শিবদাসন দাসু বলেন, “এই ভাবে আমাদের দলে লোকসভা আসনের প্রার্থী ঠিক হয় না৷ আসলে বাবুল সুপ্রিয়ই বর্তমানে দলে চাপে আছে বলেই হতাশাতেই এই সব সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করে অযথা বিভ্রান্তির সৃষ্টি করছেন৷ আগামী লোকসভা নির্বাচনে আসানসোলে আমাদের, প্রার্থীপদই সুরক্ষিত নয় বলেই এই সব প্রচারে মেতেছেন বাবুল৷” দলে কিন্তু বেশ কিছু দিন ধরেই আসানসোল আসন নিয়ে শত্রুঘ্ন সিনহার নাম ঘুরছে‍!

[ইফতার পার্টির খাবার খেয়ে অসুস্থ অন্তত ৩০, রশিদপুর হাসপাতালে রোগীদের ভিড়]

হোয়াটসআ্যপেও চলছে বিতর্ক বা উৎসুক ব্যবহারকারীদের একের পর এক প্রশ্ন৷ বিনোদন জগতের মানুষকেই প্রার্থী করে পালটা চাপ দিতে চাইছে তৃণমূল বলেই শিল্পাঞ্চলের মানুষদের দাবি৷ চাপা উৎসাহ বা বিতর্ক বেশ কিছু দিন ধরে থাকলেও স্বয়ং সাংসদের এই পোস্টকে কেন্দ্র করে বিতর্ক তুঙ্গে উঠেছে৷ যদিও তার পোস্টকে নিয়ে স্পিকটি নট বাবুল সুপ্রিয়৷ তার সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করা হলে এই বিষয়ে কোন প্রতিক্রিয়া দিতে চাননি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়৷ তবে কি বিজেপির উপরতলার নেতৃত্বের নির্দেশেই বিজেপির বর্তমান সাংসদ শত্রুঘ্ন সিনহাকে চাপে রাখতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়াতে এই বিতর্কিত পোস্ট করলেন? এই প্রশ্নকে নিয়েই শুরু হয়েছে আসানসোল দুর্গাপুর জুড়ে তুমুল জল্পনা৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে