BREAKING NEWS

১২ শ্রাবণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৯ জুলাই ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

জঙ্গলমহলে হারানো জমি ফিরে পেতে মরিয়া BJP! পুরুলিয়ার ৬ বিধায়কের রুটিন বেঁধে দিল দল

Published by: Paramita Paul |    Posted: June 22, 2021 9:54 pm|    Updated: June 22, 2021 9:54 pm

BJP sets routine for their MLAs in Purulia । Sangbad Pratidin

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: বিধানসভা নির্বাচনে জঙ্গলমহলের হারানো জমি পুনরুদ্ধারে মরিয়া বিজেপি (BJP)। সেই প্রচেষ্টা সফল করতে এখন থেকেই কোমর বাঁধছে গেরুয়া শিবির। তাই বিধায়কদের কড়া অনুশাসনে বাঁধছে পুরুলিয়া জেলা বিজেপি। আগেই বিধায়কদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল, এলাকার উন্নয়নের পরিকল্পনা, তা রূপায়নের নীলনক্সা ডায়েরিভুক্ত করে নির্দিষ্ট সময় দলকে জানাতে হবে। এবার জনসেবার জন্য বিধায়কদের নিয়ম করে দলীয় কার্যালয়ে বসার রুটিনও বেঁধে দিল গেরুয়া শিবির।

মানুষের ভোটে জিতে আসা বিধায়কদের খোঁজ পেতে যাতে সাধারন মানুষজনকে হন্যে হয়ে ঘুরতে না হয়। তাই সপ্তাহের কোন দিন তাদের এলাকার বিধায়ককে কোথায় পাওয়া যাবে তার ঠিকানা ও সময় দিয়ে সোশ্যাল সাইট ও হোয়াটসঅ্যাপে প্রচার করছে পুরুলিয়া জেলা বিজেপি।

[আরও পড়ুন: উত্তরবঙ্গে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের বলি আরও ১, ক্রমশ বাড়ছে উদ্বেগ]

পুরুলিয়া শহরের দুলমীতে লোকসভা কার্যালয়ই এখন জেলা বিজেপির অফিস। সেই অফিসেই ফি সোমবার থাকবেন জয়পুরের বিধায়ক নরহরি মাহাতো। মঙ্গলবার কাশীপুরের বিধায়ক কমলাকান্ত হাঁসদা। ওই রুটিন অনুযায়ী বুধবার জেলা কার্যালয়ে থাকবেন বলরামপুরের বিধায়ক বানেশ্বর মাহাতো। বৃহস্পতিবারের রুটিনে রয়েছেন পুরুলিয়ার বিধায়ক সুদীপ মুখোপাধ্যায়। শুক্রবার রঘুনাথপুরের বিবেকানন্দ বাউরি। শনিবার জেলা কার্যালয়ে থাকবেন পাড়ার বিধায়ক নদিয়াচাঁদ বাউরি। দুপুর একটা থেকে বিকাল পাঁচটা পর্যন্ত তাদেরকে ওই জেলা কার্যালয়ে থাকতে হবে। বিজেপির পুরুলিয়া জেলা সভাপতি বিদ্যাসাগর চক্রবর্তী বলেন, “নিজ এলাকার বিধায়ককে পেতে সাধারন মানুষজনের যাতে কোন অসুবিধা না হয় তাই একপ্রকার রুটিন করে দেওয়া হল। জেলার মানুষজন যাতে সপ্তাহের ছ’টা দিনে ছয় বিধায়ককে দলের কার্যালয়ে দেখা পান সেটাই আমাদের লক্ষ্য। বিধায়ককে না পেয়ে মানুষজনের কাজ আটকে গেল তা যাতে কোনভাবেই না হয়।”

আসলে পুরুলিয়ার বিজেপি সাংসদ জ্যোতির্ময় সিং মাহাতোকে নিয়ে এই অভিযোগ উঠেছে বারবার। জেতার পর সাধারন মানুষ তাঁকে হাতের নাগালেই পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ। বিশেষ করে করোনাকালে প্রথম পর্বে সাংসদকে না পেয়ে জেলার মানুষ ভীষনই ক্ষুব্ধ হন। তাঁর উদাসীনতা নিয়ে শহর পুরুলিয়ায় তাঁর বাড়ির সামনে বিক্ষোভও হয়। তাই দলের বিধায়কদের ক্ষেত্রে যাতে ওই ঘটনার পুনরাবৃত্তি না হয় তাই আগেভাগেই সতর্ক পুরুলিয়া জেলা বিজেপি। তাই দলেই দাবি উঠেছে বিধায়কদের মত সাংসদকে সপ্তাহের কোন দিন পাওয়া যাবে তাও রুটিনের মত করে জানিয়ে দেওয়া হোক। পুরুলিয়ার বিধায়ক সুদীপ মুখোপাধ্যায় বলেন, “দল যে নির্দেশ দিয়েছে তা পালন করব। জেলার মানুষজনের যাতে কোনও অসুবিধা না হয় সেই কারনেই এক একজন বিধায়ককে একদিন করে দলের জেলা কার্যালয়ে থাকার সিদ্ধান্ত হয়েছে।”

[আরও পড়ুন: নিজভূমে পরবাসী হতে চায় না জঙ্গলমহল, সৌমিত্র খাঁর মন্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ বনমহলে]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement